নিরিবিলিতে ছিনতাইয়ের শিকার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক গণবিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ১২:০৮ পিএম, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ঢাকা আরিচা মহাসড়কের নবীনগরের নিরিবিলি নামক স্থানে ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন গণবিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী ও পূর্ব পশ্চিম বিডি.নিউজ’র বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রতিনিধি মুন্নি আক্তার।

তিনি গতকাল (মঙ্গলবার) রাত সোয়া ৮টার দিকে নিরিবিলি যাওয়ার পথে ছিনতাইয়ের শিকার হন। এ সময় তার ভ্যানেটি ব্যাগে দুইটি মোবাইল ফোন, টাকা, সংবাদপত্রের প্রতিনিধি পরিচয়পত্রসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ছিল। এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রাত ১০টায় তিনি আশুলিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন, যার নম্বর-১৩৯৮।

মুন্নি আক্তার অভিযোগ করে বলেন, ‘আমি রিকশায় করে ঘোরাপীরের মাজার থেকে নিরিবিলি বাসায় যাচ্ছিলাম। নিরিবিলি পৌঁছানোর কিছুক্ষণ আগে একজন বাইক নিয়ে এসে আমার হাতে থাকা ব্যাগটি খুব জোরে টান দেয়। আমি হাতে ব্যথা পেয়ে ব্যাগটি ছেড়ে দেই এবং তৎক্ষণাৎ রিকশা থেকে পড়ে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি থেকে নিজেকে সামলে নিই। সন্ধ্যায় এমন ছিনতাইয়ের ব্যাপারটি সত্যিই অবাক করার মতো বিষয়।’

প্রত্যক্ষদর্শী রনি খাঁয়ের ভাষ্য মতে, ‘চলতি রিকশায় মোটরসাইকেল থেকে হেলমেট পরিহিত এক ছিনতাইকারী আকস্মিক হ্যাচকা টানে ব্যাগ নিয়ে যায়। সে এমনভাবে ব্যাগটি টান দিয়েছিল যেন,আপু রিকশা থেকে পড়ে যান।

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিজাউল হক বলেন, বেশ কিছু দিন এমন ঘটনা ছিল না। প্রায় দুই মাস পরে নিরিবিলিতে এমন ঘটনা ঘটল। তবে ঘটনাটি শোনার পরপরই আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি। ছিনতাই হওয়া মোবাইল ফোন উদ্ধারের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে।

তিনি আরও জানান, আগামী ২১ ফেব্রুয়ারির পর থেকে সাভার, আশুলিয়া, ধামরাইয়ে ছয়টি পুলিশ চেক পোস্ট বসানো হবে। কোনো মাইক্রোবাস চেক ছাড়া এই এলাকায় প্রবেশ করতে পারবে না। সন্দেহভাজন কোনো বাইক দেখলে চেক করা হবে।’

জেডএ/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]