ইন্টারনেট সম্পর্কে যথাযথ জ্ঞান না থাকলে উন্নতি অসম্ভব

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৯:৫৬ পিএম, ২৮ মার্চ ২০১৯

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) রাজশাহী আইটি-আইটিইএস চাকরি মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে (টিএসসিসি) মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মেলায় প্রাথমিকভাবে ৩০০ জন চাকরিপ্রার্থীকে সাক্ষাৎকারের জন্য মনোনীত করা হয়।

সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, মানব সম্পদ উন্নয়ন, প্রত্যেক নাগরিকের দ্রুত গতির ইন্টারনেট সেবা নিশ্চিত করা, সরকারের সকল সেবাকে ডিজিটালাইজড করা ও আইসিটি শিল্পের বিকাশের জন্য বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি ও প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। বর্তমান সময়ে ইন্টারনেট সম্পর্কে যথাযথ জ্ঞান না থাকলে উন্নতি করা প্রায় অসম্ভব। যদি স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কৃষিসহ সকল ক্ষেত্রকে ইন্টারনেটের আওতায় আনতে পারি তাহলে বাংলাদেশে একটা বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনা যাবে।

পলক বলেন, বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে আইটি পার্ক নির্মাণ করা হচ্ছে। তাই সংশ্লিষ্ট বিষয়ে দক্ষ জনশক্তির চাহিদা বেড়ে গেছে। নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের জন্য নিজেকে যোগ্য করে গড়ে তোলাই শিক্ষার্থীদের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের নির্দেশনায় আমরা নিম্ন মাধ্যমিক থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যন্ত আইসিটি কোর্স চালু করেছি। শিক্ষার্থীদের হাতে-কলমে শিক্ষা গ্রহণের জন্য স্কুলগুলোয় ৯ হাজার শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব চালু করেছি। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতেও বিশেষ ল্যাব প্রতিষ্ঠার কাজ চলছে।

সকাল সাড়ে ৯টায় টিএসসিসি প্রাঙ্গণে এ মেলার উদ্বোধন করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহান। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের আওতায় লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ, এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড গভর্নেন্স (এলআইসিটি) প্রকল্প রাবি ক্যারিয়ার ক্লাবের সহযোগিতায় এই মেলার আয়োজন করে।

দিনব্যাপী এ মেলায় ঢাকা, রাজশাহী, যশোরসহ দেশের প্রায় অর্ধশত আইটি বিষয়ক প্রতিষ্ঠান স্টল দেয়। মেলায় আইটি বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রিধারী প্রায় ১৫ হাজার তরুণ-তরুণী অংশ নেয়। এদের মধ্যে ছয় হাজার জন চাকরিপ্রার্থী প্রতিষ্ঠানগুলোতে সিভি জমা দেন এবং ৩০০ জনকে প্রাথমিকভাবে সাক্ষাৎকারের জন্য নির্বাচন করা হয়। এছাড়াও মেলায় বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও ক্যারিয়ার বিষয়ক চারটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

মেলায় রোবোটিক্স এক্সিভিশন অ্যান্ড কম্পিটিশন অনুষ্ঠিত হয়। এতে চ্যাম্পিয়ন হয় রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় টিম। তাদেরকে পুরস্কার হিসেবে ২৫ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হয়। এ ছাড়াও মেলায় রোবট সোফিয়ার আদলে তৈরি পেরু নামের একটি রোবট প্রদর্শন করা হয়। মেলায় অংশগ্রহণকারী ও দর্শনার্থীরা পেরুর সঙ্গে কথা বলেন।

সালমান শাকিল/আরএআর/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com