মোবাইল চুরি করে হল থেকে বিতাড়িত ছাত্রলীগ নেতা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৩:৫৬ এএম, ০৮ মে ২০১৯

একই প্যানেলের রাজনৈতিক ছোট ভাইয়ের মোবাইল ফোন চুরি করার অভিযোগ উঠেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় তাকে হল থেকে বের করে দিয়েছে সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান হলে এ ঘটনা ঘটে। ছাত্রলীগের ওই নেতার নাম কৌশিক রহমান শিমুল। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের শিক্ষা ও পাঠচক্রবিষয়ক সম্পাদক ও ‘মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড’ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের ৪২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ৩১২নং কক্ষে থাকতেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ছাত্রলীগ সূত্রে জানা যায়, রাত সাড়ে ১২টার দিকে হলের ৩৩০ নম্বর কক্ষ থেকে ছাত্রলীগকর্মী ফিরোজের (দর্শন-৪৩ ব্যাচ) একটি মুঠোফোন চুরি হয়। সন্দেহের ভিত্তিতে কৌশিক রহমানের কক্ষে খুঁজতে যান ছাত্রলীগের ৫-৬ জন নেতাকর্মী। এ সময় তিনি জোর করে কক্ষ থেকে বের হয়ে যান।

পরে হলের ওয়াশরুমের কাছে গিয়ে মুঠোফোনটি ফেলে দেয়ার চেষ্টা করলে নেতাকর্মীরা তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। এরপর রাত আড়াইটার দিকে কৌশিক রহমানকে হল থেকে বের করে দেন তারা।

অভিযোগের বিষয়ে কৌশিক রহমান বলেন, ‘ফিরোজ ও হাবিব ইয়াবার ব্যবসা করে- বিষয়টা জেনে যাওয়ার কারণে আমাকে হল থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। আমি মোবাইল চুরি করি নাই।’

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানা বলেন, ‘এ-রকম কিছু তো শুনিনি। আমি তো জানতাম সে (কৌশিক রহমান) অসুস্থ। তাই তাকে চিকিৎসাকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল রাতে। যদি চুরির ঘটনা ঘটে থাকে, তাহলে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

হাফিজুর রহমান/বিএ

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :