ছাত্রলীগ নেতা আলী মর্তুজা হত্যার রায় মঙ্গলবার

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৫:২০ পিএম, ২৭ মে ২০১৯

১৮ বছর আগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলী মর্তুজাকে নিজ বাড়ি হাটহাজারীর ছড়ারকুলে ব্রাশফায়ারে হত্যা করা হয়। নৃশংস এ হত্যা মামলার বিচারকাজ সোমবার শেষ হয়েছে। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে আগামীকাল মঙ্গলবার (২৮ মে) এ মামলার রায়ের দিন ধার্য করেছেন আদালত। এর মধ্যে দিয়ে দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান হবে।

চট্টগ্রাম জেলা আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর এ কে এম সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী জাগো নিউজকে বলেন, আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে চতুর্থ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম মঙ্গলবার (২৮ মে) আলী মর্তুজা হত্যা মামলার রায়ের দিন ধার্য করেছেন। ওইদিন বেলা ১১টায় রায় ঘোষণার কথা রয়েছে।

এর আগে ২০০১ সালে আলী মর্তুজা হত্যার পরদিন ৩০ ডিসেম্বর আটজনকে আসামি করে হাটহাজারী থানায় হত্যা মামলা করেন তার বড় ভাই ফতেয়াবাদ আদর্শ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলী নাসের চৌধুরী। মামলার প্রধান আসামি শিবির ক্যাডার হাবিব খান ঘটনার পর থেকে পলাতক। জামিনে গিয়ে পলাতক দুই আসামি। বিভিন্ন সময় নিহত হয়েছেন তিনজন। অন্য দুজন কারাগারে।

পুলিশ ও আদালত সূত্র জানায়, তদন্ত শেষে পুলিশ ২০০৪ সালে এই মামলার অভিযোগপত্র দেয়। এতে আটজনকেই অভিযুক্ত করা হয়। আসামিদের মধ্যে ঘটনার পর থেকে পলাতক শিবির ক্যাডার হাবিব খান। জামিনে গিয়ে পলাতক মো. হাসান ও মো. ইসমাইল।

র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন সন্ত্রাসী গিট্টু নাসির, গণপিটুনিতে নিহত হন আইয়ুব আলী ওরফে রাশেদ এবং সন্ত্রাসীদের গুলিতে মারা যান সাইফুল ইসলাম। শিবির ক্যাডার তছলিম উদ্দিন ওরফে মন্টু ও মো. আলমগীর ওরফে বাইট্টা আলমগীর কারাগারে।

বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল জাগো নিউজকে বলেন, মামলার বিচারকাজ শেষে চতুর্থ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে মামলার রায় ঘোষণা করা হবে। আমরা আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি আশা করছি।

রায়ে অভিযুক্ত আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করে বাদী আলী নাসের চৌধুরী জাগো নিউজকে বলেন, ১৮টি বছর কেটেছে রায়ের অপেক্ষায়। অবশেষে তার অবসান হতে যাচ্ছে। রায়ের পূর্ব মুহূর্তে এটুকুই আশা করছি সব আসামিকে বিজ্ঞ আদালত মৃত্যুদণ্ড দেবেন।

আবদুল্লাহ রাকীব/আরএআর/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :