প্রতিবাদী বুয়েট শিক্ষার্থীদের মোমবাতি প্রজ্বলিত মৌন মিছিল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১৩ পিএম, ০৯ অক্টোবর ২০১৯

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) ছাত্র রাজনীতি বন্ধের দাবিসহ আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে মোমবাতি প্রজ্বলন করে মৌন মিছিল করেছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। সন্ধ্যা ৭টায় বুয়েট শিক্ষার্থীরা মোমবাতি প্রজ্বলিত মৌন মিছিল বের করেন। বুয়েট শহীদ মিনার চত্বর থেকে তারা মৌন মিছিল বের করে ক্যাম্পাসের ভেতরের রাস্তা প্রদক্ষিণ করেন। মৌন মিছিলে অংশ নেন শত শত বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী।

এরপর বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ফের অবস্থানের ঘোষণা দিয়ে আজকের মতো আন্দোলন কর্মসূচি স্থগিত ঘোষণা করেন বুয়েট শিক্ষার্থীরা।

এর আগে তারা আবরার হত্যাকাণ্ডের বিচার না হওয়া পর্যন্ত সাতদিনের জন্য সব সাংগঠনিক ছাত্র রাজনীতি বন্ধের দাবি জানান। বুধবার বিকেল পৌনে ৫টায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা এ দাবি জানান।

দিনভর আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ছাত্র রাজনীতির নানা সমালোচনা করে বক্তব্য দেন। তারা বলেন, আমরা এমন ছাত্র রাজনীতি কখনো চাই না।

এর আগে গণমাধ্যমকর্মীদের উদ্দেশ্যে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বলেন, মিথ্যা কাল্পনিক কোনো তথ্য বা সংবাদ পরিবেশন করে কিংবা গুজব ছড়িয়ে কেউ পরিস্থিতি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করবেন না। তারা সহনশীল থেকে ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সহযোগিতার জন্য গণমাধ্যমকর্মীদের আহ্বান জানান।

এর আগে বুয়েটের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে বুয়েট ভিসির পদত্যাগসহ ১০ দফা দাবির সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে বুয়েট শিক্ষক সমিতি।

উল্লেখ্য, গত রোববার রাত ৩টার দিকে বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। জানা যায়, ওই রাতেই হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা। ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক জানিয়েছেন, তার মরদেহে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ১৯ জনকে আসামি করে সোমবার সন্ধ্যার পর চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা করেন নিহত আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ্। এ ঘটনায় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ কয়েকজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

আরএম/এসএইচএস/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]