ঢাবির কার্জন হলের জানালায় ফাঁস লাগানো মরদেহ উদ্ধার

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৩৯ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০১৯

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কার্জন হলে জানালার গ্রিলে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় একজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে শাহবাগ থানা পুলিশ। মৃত ব্যক্তির নাম সেলিম হাওলাদার (৪০)।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) সকাল ৮টার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। পরে শাহবাগ থানা পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা গেছে, সেলিম হাওলাদার ঢাবি ক্যাম্পাসে চা বিক্রি করতেন। তার বাড়ি পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলায়। ‘আত্মহত্যা’র কারণ এখনো সুস্পষ্টভাবে না জানা গেলেও ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক অশান্তির কারণে সে গলায় ফাঁস দিয়ে ‘আত্মহত্যা’ করতে পারেন।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সকালে অজ্ঞাত পরিচয়ে আমরা ঢাবির কার্জন হল থেকে একটি লাশ উদ্ধার করি। মরদেহটি রসায়ন অনুষদ ভবনের নিচ তলার বাইরের গ্রিলের সঙ্গে গলায় সাদা ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় ছিল। মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি আত্মহত্যা করেছেন, তবে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, সেলিম নামে লোকটি কার্জন হলে চায়ের দোকানে কাজ করতো। সকালে তার মরদেহ কার্জন হলে পাওয়া গেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, সে আত্মহত্যা করেছে। তার মরদেহ আমরা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছি।

আরএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]