জাবিতে উন্নয়নের পক্ষে ভিসিপন্থীদের মোমবাতি প্রজ্বলন

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক জাবি
প্রকাশিত: ০৮:৩৭ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০১৯

দুর্নীতির অভিযোগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান আন্দোলনের বিরুদ্ধে এবং উন্নয়নের পক্ষে ভিসিপন্থী শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচি পালন করেছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের পাদদেশে ‘অন্যায়ের বিপক্ষে এবং উন্নয়নে পক্ষে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে এ কর্মসূচিতে প্রায় তিনশ শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী অংশ নেন।

মোমবাতি প্রজ্বলন শেষে উন্নয়নের পক্ষে সংক্ষিপ্ত ডকুমেন্টারি প্রদর্শন এবং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে ‘অন্যায়ের বিপক্ষে এবং উন্নয়নে পক্ষে জাহাঙ্গীরনগর’ এর মুখপাত্র অধ্যাপক মোহাম্মদ আলমগীর কবীরের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক এ কে এম শাহনাওয়াজ ও অধ্যাপক আহমেদ রেজা। এছাড়াও অফিসার সমিতি, কর্মচারী সমিতি এবং কর্মচারী ইউনিয়নের নেতারাও উন্নয়নের পক্ষে বক্তব্য দেন।

JU-(2)

এ সময় অধ্যাপক মোহাম্মদ আলমগীর করিব বলেন, ‘আমরা আজ এই মোমবাতি প্রজ্বলন করেছি অন্ধকার দূর করে আলো ফোটানোর জন্য। উন্নয়নে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিতে যেসব অপশক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজ করছে তা দূর করে আমদের এই কর্মসূচি।’

তিনি উপাচার্যের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের উদ্দেশে বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির কাছে বিচার দিয়ে ফয়সালা না আসা পর্যন্ত উপাচার্যের বিরুদ্ধে আবারও আন্দোলনে নামা ঠিক নয়।’

অন্যদিকে একই দিন বিকেল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনের সেমিনার কক্ষে সংহতি সমাবেশ করেছে উপাচার্যের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে আন্দোলনকারীরা উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে কঠোর কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি আশিকুর রহমান। তিনি বলেন, ‘সংহতি সমাবেশে আমরা ঐকমত্য হয়েছি, উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামকে আর কোনো অনুরোধ না করে আন্দোলনের মাধ্যমে অপসরণ করা হবে।’

ফারুক হোসেন/এমবিআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]