চবিতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে পেটাল ছাত্রলীগ কর্মী

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ১১:১৫ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৯

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) এক দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে মারধর করেছে ছাত্রলীগ কর্মী। রোববার রাত ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার ওই শিক্ষার্থীর নাম শুক্কুর আলম। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। অন্যদিকে মারধরকারী শিক্ষার্থীর নাম মুর্শেদুল আলম রিফাত। তিনি ব্যবস্থাপনা বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ও শাখা ছাত্রলীগের উপ-গ্রুপ বিজয় গ্রুপের কর্মী।

জানা গেছে, রোববার রাত আটটার দিকে খাবার কিনতে সোহরাওয়ার্দী হলের সামনের দোকানে যান শুক্কুর আলম। এ সময় ছাত্রলীগ কর্মী রিফাত তাকে উত্যক্ত করে। এ সময় শুক্কুর উত্যক্ত করার কারণ জানতে চাইলে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে খাবার কিনে ফেরার পথে সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে তাকে মারধর করেন রিফাত। শুক্কুরের সহপাঠীরা তাকে উদ্ধার করে চবি মেডিকেল সেন্টারে নিয়ে যান। মারধরকারী ওই শিক্ষার্থী দীর্ঘদিন ধরে সোহরাওয়ার্দী হলে অবৈধভাবে অবস্থান করছেন বলে অভিযোগ আছে।

এদিকে চবি মেডিকেল সেন্টারের কর্মরত চিকিৎসক ডা. শুভাষীস রায় বলেন, কিল-ঘুষি মারার কারণে শুক্কুর আলমের মাথায় ও চোখে আঘাত লেগেছে। আমরা তাকে চিকিৎসা দিচ্ছি।

প্রতিবন্ধীদের সংগঠন ডিসকুর সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক জাগো নিউজকে বলেন, আমাদের সংগঠনের সদস্য শুক্কুরকে বিনা কারণে ছাত্রলীগ কর্মী রিফাত মারধর করেছেন। সোমবার (১১ নভেম্বর) তার পরীক্ষা রয়েছে। আমরা ওই ছাত্রলীগ কর্মীর গ্রেফতারের দাবিতে সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে অবস্থান নিয়েছি। তাকে গ্রেফতার না করা পর্যন্ত এখান থেকে সরবো না।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর রেজাউল করিম বলেন, প্রতিবন্ধী একটি ছেলেকে মারধর করা হয়েছে বলে শুনেছি। আমরা সোমবার লিখিত অভিযোগ দিতে বলেছি।

আবদুল্লাহ রাকীব/এমএসএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]