শাবিতে অতিরিক্ত ভর্তি ফি প্রত্যাহারের দাবি

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৬:৪৪ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবি) প্রথম বর্ষে ভর্তিতে মেডিকেল, ইন্স্যুরেন্স এবং ডোপ টেস্টের নামে গত বছরের চেয়ে ৫০০ টাকা বেশি আদায়ের প্রতিবাদে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন।

বুধবার (১৩ নভেম্বর) বিকেলে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট শাবি শাখা। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্জুনতলা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে ক্যাম্পাসের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়। পরে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেন সংগঠনের নেতারা।

শাবি ছাত্রফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মিয়ার সঞ্চালনায় এবং সভাপতি নাজিরুল আযম বিশ্বাসের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি তৌহিদুজ্জামান জুয়েল, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী সুদীপ্ত ভাস্কর অর্ঘ্য প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ‘ডোপ টেস্ট’ ও ‘ইন্স্যুরেন্স ফি’র নামে বাণিজ্য হচ্ছে। বিশ্বের উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়গুলো যখন ডোপ টেস্ট ছাড়াই অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে, নিরাময় কেন্দ্রের সহযোগিতা নিয়ে মাদকাসক্তদের সংশোধন করার চেষ্টা করছে তখন এখানে (শাবি) এ ধরনের ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ অযৌক্তিক।

SUST-Rally-2.jpg

তারা বলেন, ‘ডোপ টেস্ট’ এবং ‘ইন্স্যুরেন্স’র নামে ৩০০ ও ২০০ টাকা করে মোট ৫০০ টাকা নেয়ার উদ্দেশ্য যে বাণিজ্যিক তা আরও স্পষ্ট। কারণ ৭৬ হাজার ভর্তি ফরমের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ কোটি টাকার বেশি অন্যায্য ‘ইনকাম’ হয়েছে। কিন্তু বার্ষিক বাজেটে শিক্ষার্থীদের কল্যাণে মাত্র ১০ লাখ টাকাও যোগ করতে পারে না প্রশাসন।

তারা অতিরিক্ত ফি নেয়ার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

এছাড়া একই ইস্যুতে একই সময়ে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল শাবি শাখা।

মোয়াজ্জেম হোসেন/এমএমজেড/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com