জীবনের সেরা দিন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৫৮ পিএম, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯

ক্যাম্পাসের প্রিয় সব মুখের সঙ্গে, প্রিয় সব স্থান ঘুরে ঘুরে ছবি তুলছিলেন গ্র্যাজুয়েট সাদিয়া ইসলাম। সঙ্গে তার বন্ধুরাও। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সদ্য পাস করা সাদিয়া অংশ নিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির ৫২তম সমাবর্তনে।

সোমবার সকাল থেকেই সমাবর্তনে অংশ নেয়া গ্র্যাজুয়েটদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।

সাদিয়া জাগো নিউজকে বলেন, এ দিনটিকে ঘিরে অনেক দিন ধরে প্রস্তুতি নিয়েছি। এটি জীবনের সেরা দিন। তাছাড়া ক্যাম্পাসটি ছেড়ে চলে যাচ্ছি। অথচ এখানকার কোণায় কোণায় জীবনের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সময়ের স্মৃতি রেখে যাচ্ছি। এ কারণে ঘুরে ঘুরে ছবি তুলছি বন্ধুদের নিয়ে।

সাদিয়ার মতোই স্মৃতি আঁকড়ে ধরার চেষ্টা দেখা যায় হাজার হাজার গ্র্যাজুয়েটের মধ্যে। টিএসসি মোড়ের চায়ের দোকান থেকে শুরু করে রাজু ভাস্কর্য, অপরাজেয় বাংলা, এমনকি বিভিন্ন হলের সামনেও গাউন পরা গ্র্যাজুয়েটরা ব্যস্ত ছবি তুলতে।

অনেকে মা-বাবাসহ পরিবারের স্বজনদেরও নিয়ে এসেছেন এই খুশি ভাগাভাগি করতে।

DU-1

দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ থেকে পড়াশোনা শেষ করার আনন্দ নিয়ে গ্র্যাজুয়েটরা বলছেন, এখন পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর সময়। দেশ ও দেশের মানুষের জন্য কিছু করার সময়।

ঢাবির রাজু ভাস্কর্যের সামনে বন্ধুদের নিয়ে ছবি তুলছিলেন আনিসুর রহমান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করা এই গ্র্যাজুয়েট বলেন, ‘যেদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়েছিলাম সেদিন বাবার চোখে খুশির পানি দেখেছিলাম। পরিবারের নানা সংকটেও বাবা আমাকে বুঝতে দেননি তাদের কষ্ট। তিনি আমার পড়ালেখার খরচ চালিয়ে গেছেন। এখন বাবার পাশে দাঁড়াব। বাবা মায়ের ভরসা হব।

ঢাবির অধিভুক্ত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের গ্র্যাজুয়েটরাও এসেছেন সমাবর্তনে অংশ নিতে। তারাও স্মৃতি ধরে রাখতে ছবি তুলছেন বিভিন্ন স্থাপনার সামনে।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষাকেন্দ্রের খেলার মাঠে সমাবর্তনেরর অনুষ্ঠানিকতা শুরু হয় দুপুর ১২টা থেকে। সমাবর্তনে সভাপতিত্ব করবেন রাষ্ট্রপতি ও ঢাবির চ্যান্সেলর মো. আবদুল হামিদ।

সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত রয়েছেন জাপানের টোকিও বিশ্ববিদ্যালয়ের কসমিক রে রিসার্চ ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. তাকাকি কাজিতা। তাকে সম্মানসূচক ডক্টর অব সাইন্স ডিগ্রি দেয়া হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এবারের সমাবর্তনে অংশগ্রহণের জন্য ২০ হাজার ৭৯৬ জন গ্র্যাজুয়েট নিবন্ধন করেন। অনুষ্ঠানে ৭৯ জন কৃতী শিক্ষক, গবেষক ও শিক্ষার্থীকে ৯৮টি স্বর্ণপদক, ৫৭ জনকে পিএইচডি, ৬ জনকে ডিবিএ এবং ১৪ জনকে এমফিল ডিগ্রি দেয়া হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত কলেজের গ্র্যাজুয়েটরা ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজ ভেন্যু থেকে সরাসরি সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন।

জেপি/জেডএ/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]