অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের পাশে এফ রহমান হল পরিবার

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৪১ এএম, ৩০ মে ২০২০

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে স্থবির পুরো বাংলাদেশ। দেশে ক্রমাগত বাড়ছে লকডাউনের মেয়াদ।অনেক শিক্ষার্থীর খণ্ডকালীন কাজ বা টিউশনির অর্থে চলতো তাদের পরিবার। ফলে এসব শিক্ষার্থী ও তাদের পরিবার চরম দুরাবস্থার মধ্যে পড়েছে। এদেরকে সহযোগিতার জন্য এগিয়ে এসেছে এফ রহমান হল পরিবার।

চলমান করোনাভাইরাসে সংক্রমণের ফলে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে গত ১১ এপ্রিল হলের প্রভোস্ট, হাউজ টিউটর, হল সংসদ সদস্যের সমন্বয়ে স্যার এ এফ রহমান হল ছাত্র সংসদ এর ব্যানারে সংকটকালীন শিক্ষার্থী সহায়তা ফান্ড করে এফ রহমান হল পরিবার।

এফ রহমান হল অ্যালামনাই, হলের সাবেক-বর্তমান শিক্ষার্থী, সকল প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠন, হল পরিবারের শিক্ষকদের সহযোগিতায় প্রায় তিন লক্ষাধিক টাকার ফান্ড গঠন করে।

জানা যায়, এখন পর্যন্ত হলের ৯১ জন অসচ্ছল শিক্ষার্থী, ক্যান্টিন বয়, দোকান, সেলুন, লন্ড্রি কর্মচারীর তালিকা করে তাদের পরিবারের কাছে বিকাশের মাধ্যমে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ প্রদান করা হয়।

অনুদান দেয়ার ক্ষেত্রে যেসব শিক্ষার্থীর বাবা বা অভিভাবক জীবিত নেই, আর্থিকভাবে অসচ্ছল, বাবা-মা কর্মহীন, বাবা-মায়ের উপার্জন অপ্রতুল এবং অসচ্ছল পরিবারের প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।

দরিদ্র শিক্ষার্থীদের আর্থিক অনুদানের উদ্যোগ গ্রহণ করায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষার্থীরা এ কাজকে প্রশংসা করে করোনা যোদ্ধার সঙ্গে তুলনা করেছেন তাদের।

জানা গেছে, আর্থিক অনুদানের পরিমাণ শিক্ষার্থীর আর্থিক অবস্থা বিবেচনায় নির্ধারিত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের মর্যাদা সমুন্নত রাখতে আবেদনকারী এবং অনুদান গ্রহীতার ব্যক্তি-পরিচয় গোপন রাখা হচ্ছে।

স্যার এ এফ রহমান হল সংসদ এর ভিপি আব্দুল আলীম খান বলেন, যতদিন পর্যন্ত দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হবে এমনকি ভবিষ্যতেও এ সহযোগিতা প্রদান প্রক্রিয়া অব্যহত রাখা হবে।

তিনি বলেন, যারা আমাদের এ সহায়তা কার্যক্রমে সহযোগিতা করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি এবং আমাদের এ সহয়তা কার্যক্রমে স্বচ্ছতা জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার জন্য দুইজন শিক্ষক, হল সংসদ সদস্য, সাধারণ শিক্ষার্থী'র সমন্বয়ে গঠিত টিম দ্বারা পর্যালোচনা করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ মার্চ করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে শিক্ষার্থীদের জন্য হলের প্রতিটি কক্ষে হ্যান্ড স্যানিটাইজার এবং সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ, হলের প্রবেশ মুখে হাত ধৌত করার ব্যবস্থাসহ প্রতি মাসের প্রথম সপ্তাহে হলে পরিচ্ছন্নতা অভিযানের এফ রহমান হল সংসদের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রশংসিত হয়েছে।

এম্এএস

 

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]