টিএসসিতে ছাত্রলীগ-ছাত্রদল সংঘর্ষ, পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের নেতাকর্মী হতাহত হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে।

বুধবার (১ জুলাই) সন্ধ্যায় টিএসসিতে ছাত্রদলের এক নেতার অবস্থান করাকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের পর উভয় পক্ষ নিজেদের নির্দোষ প্রমাণ করতে তাদের দলের সদস্যদের আহতের দাবি করে। উভয় পক্ষেই তিনজন করে আহত হয়েছে বলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দাবি করে ছাত্র সংগঠন দুটি।

জানা যায়, বুধবার রাতে ছাত্রদলের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মাহফুজ চৌধুরী ও তার বান্ধবী প্রাইভেটকারে টিএসসিতে আসেন। ওই সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের জসিমউদদীন হল সংসদের সাধারণ সম্পাদক (জিএস) ইমাম হাসান তাকে সেখানে বসতে নিষেধ করেন। এবং সেখান থেকে চলে যেতে বলেন। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। পরে উভয় পক্ষের নেতাকর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে বলা হয়, কয়েক দিন ধরে টিএসসিতে বিকেলে অনেক মানুষ জড়ো হয়। করোনা পরিস্থিতি মাথায় রেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিম এখানে আড্ডা না দিয়ে বাসায় চলে যেতে অনুরোধ জানিয়েছে। তবে করোনা পরিস্থিতিতে রাজধানীর অসহায় মানুষদের রান্না করে খাবার খাওয়ানোর জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের টিএসসিতে থাকতে হয়। তাই প্রতিদিনের মতো গতকালও স্বেচ্ছাসেবীরা টিএসসিতে জড়ো হয়। এ সময় ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা তাদের ওপর হামলা চালায়। এতে ছাত্রলীগের তিনজন আহত হন।

ছাত্রদলের দাবি, বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মাহফুজ চৌধুরী সন্ধ্যায় টিএসসিতে গেলে ছাত্রলীগের কর্মীরা বিনা উস্কানিতে তাদের ওপর হামলা চালায়। এতে মাহফুজ, তার বান্ধবী ও ছাত্রদল নেত্রী মানছুরা আক্তার আহত হন।

সংঘর্ষের পর দুপক্ষই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়। সেখানে চিকিৎসা নিতে গিয়েও দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

আল-সাদী ভূঁইয়া/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]