মাদকাসক্তদের হামলায় ঢাবির প্রক্টরিয়াল টিমের ৪ সদস্য আহত

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ঢাবি
প্রকাশিত: ১২:২২ এএম, ০৩ আগস্ট ২০২০

ক্যাম্পাসে মাদক সেবনে বাধা দেয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) প্রক্টরিয়াল টিমের ওপর হামলা করেছে মাদকাসক্তরা। এতে প্রক্টরিয়াল টিমের চার সদস্য আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় শাহবাগ থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

শনিবার (১ অগাস্ট) ঢাবির টিএসসি এলাকায় মাদকাসক্তদের উঠে যাওয়ার কথা বললে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে প্রক্টরিয়াল টিমের চার সদস্য আহত হয়। আহতরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ক্যাম্পাসে কয়েকজন কর্মচারীর বাসায় নিয়মিত মাদকের আসর বসত। ক্যাম্পাস বন্ধের পর বিশ্ববিদ্যালয় ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মাঝামাঝি নীরব রাস্তাকে তারা মাদক সেবনের আখড়া হিসেবে গড়ে তোলে। মাদকের যোগান দিয়ে আসতো বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু অসাধু কর্মচারী। তারা বহিরাগত মাদকাসক্তদের প্রটোকল দিয়ে নিয়ে আসতো এবং ক্যাম্পাসে মাদক সেবনের নিরাপদ জায়গা ভেবে প্রকাশ্যে মাদক সেবন শুরু করে। পবিত্র ঈদুল আজহার দিন সন্ধ্যায় ক্যাম্পাস থেকে বহিরাগতদের বের হতে মাইকিং করে প্রক্টরিয়াল টিম। তাদের মাইকিং শোনে সবাই চলে গেলেও মাদকাসক্তরা থেকে যায়। পরে প্রক্টরিয়াল টিম গাড়ি থেকে নেমে তাদের চলে যাওয়ার অনুরোধ করলে তারা যেতে অস্বীকার করে। এ সময় তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে মাদকাসক্তরা প্রক্টরিয়াল টিমের ওপর হামলা করে। এতে চার সদস্য আহত হয়।

ঢাবি প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী জাগো নিউজকে বলেন, শনিবার ঈদুল আজহার দিনে প্রক্টরিয়াল টিমের সদস্যদের ওপর মাদকাসক্তরা হামলা করে। এতে আমাদের চার সদস্য আহত হয়েছে। তারা তাৎক্ষণিক প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় শাহবাগ থানায় অভিযোগ করেছি। তারা যথাযথ ব্যবস্থা নেবে। এছাড়া ক্যাম্পাসে মাদক সেবন কখনই হতে দেয়া হবে না। আমরা মাদকের বিরুদ্ধে শক্ত অভিযান পরিচালনা করবো। কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। প্রক্টরিয়াল টিমের পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকেও এ বিষয়ে কাজ করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

শাহবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসান জাগো নিউজকে জানান, ঢাবি কর্তৃপক্ষের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে আমরা ইতিমধ্যে কাজ শুরু করেছি। দোষীদের অবশ্যই বিচারের আওতায় আনা হবে।

আল সাদী/ এএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]