আশ্বাসেও থামেনি নর্থ সাউথের আন্দোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৫৭ পিএম, ২০ অক্টোবর ২০২০

টানা তিনদিন আন্দোলনের পর মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। শিক্ষার্থীদের সেমিস্টার ও অ্যাক্টিভিটিস ফি (লাইব্রেরি, কম্পিউটারসহ অন্যান্য) বাবদ ২০ শতাংশ ছাড় দেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। তবে কর্তৃপক্ষের এ আশ্বাসেও আন্দোলন থামেনি নর্থ সাউথে।

মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. আবু নোমান মোহাম্মদ আতাহার আলী আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের মাঝে উপস্থিত হয়ে বলেন, ‘বর্তমানে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে সেমিস্টার ও অ্যাক্টিভিটিস ফির ওপর ২০ শতাংশ মওকুফ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। চলতি সেমিস্টার থেকে এটি কার্যকর করা হবে। আমরা আশা করি, এ ঘোষণার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন ছেড়ে পড়ালেখায় মনোযোগী হবে।’

South-(4).jpg

তিনি বলেন, ‘নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় সব আইন-কানুন মেনে পরিচালিত হয়। শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন রকম বৃত্তি ও সেমিস্টার ফি ছাড় দেয়া হয়। মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও মেধাবীদের বিনামূল্যে লেখাপড়া করার সুযোগ দেয়া হয়। তাই বলে কর্তৃপক্ষ চাইলেই শিক্ষার্থীদের বড় ধরনের ছাড় দেয়া সম্ভব হয় না।’

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্ত মানছেন না নর্থ সাউথের আন্দোলনকারীরা। প্রক্টরের দেয়া আশ্বাসের পরপরই শিক্ষার্থীরা ‘মানি না, মানব না’ বলে স্লোগান দিতে থাকেন। এ সময় তারা বিচ্ছিন্ন হয়ে প্রতিবাদে ফেটে পড়েন।

South-(4).jpg

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা বলছেন, সেমিস্টার ও অ্যাক্টিভিটিস ফির ওপর ৩০ শতাংশ ছাড় দিতে হবে। অন্যথায় তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী আহাদুল ইসলাম আহাদ, নাসিউজ্জামান ও আরাফাত জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমাদের দাবি, সেমিস্টার ও অ্যাক্টিভিটিস ফির ওপর ৩০ শতাংশ ছাড় দিতে হবে। ২০ শতাংশ ছাড় দিলে হবে না। তা নাহলে আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।’

এমএইচএম/এসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]