শাবিতে সহকারী প্রক্টর পদে প্রথম নারী

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক শাবি
প্রকাশিত: ০২:৩৭ পিএম, ১৮ নভেম্বর ২০২০

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবি) নতুন পাঁচ সহকারী প্রক্টর নিয়োগ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো একজন নারী সহকারী প্রক্টর হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। তিনি ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক তাসনিয়া মিজান চৌধুরী।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিয়োগপ্রাপ্ত অন্যরা হলেন- ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভগের সহকারী অধ্যাপক প্রণব কুমার বিশ্বাস, সমুদ্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সজিব কুমার মহান্ত এবং পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রভাষক মো. মাজেদুল ইসলাম খান।

আগামী তিন বছরের জন্য এ পদে নিয়োগ পেয়েছেন তারা।

উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ বলেন, ‘আমরা চাই প্রশাসনে লিঙ্গসমতা যাতে নিশ্চিত হয়। শুধু পুরুষ সহকর্মীরা বিভিন্ন দায়িত্বে থাকবে, নারীরা থাকবে না, তা তো হয় না। বিশ্ববিদ্যালয়ে সবার সমান সুযোগ থাকা দরকার। ধীরে ধীরে সংখ্যাটা আরও বাড়বে।’

তিনি বলেন, ‘ছাত্রীরা একজন পুরুষের চেয়ে সহজেই নারীদের কাছে তাদের সমস্যার ব্যাপারে স্বাচ্ছন্দ্যে বলতে পারে। মন খুলে কথা বলতে পারে। এজন্য প্রতিটি বিভাগেও দুজন ছাত্র উপদেষ্টার একজন নারী আছেন।’

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম নারী সহকারী প্রক্টর হিসেবে নিয়োগ পেয়ে জাগো নিউজের কাছে অনুভূতি ব্যক্ত করেন প্রভাষক তাসনিয়া মিজান চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম নারী সহকারী প্রক্টর হিসেবে নিয়োগ পেয়ে আমি সত্যিই গর্বিত। এজন্য উপাচার্য স্যারের প্রতি অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।’

প্রভাষক তাসনিয়া বলেন, ‘সকল শিক্ষার্থীদের জন্যই কাজ করব। একজন নারী হিসেবে ছাত্রীদের পাশে দাঁড়াতে পারব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনুপ্রেরণা মনে করে দায়িত্ব পালন করব।’

নিজের দায়িত্ব পালনে সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেছেন এই নারী সহকারী প্রক্টর।

উল্লেখ্য, ১৯৯১ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম শুরুর পর এবারই প্রথম কোনো নারী সহকারী প্রক্টর হিসেবে যোগদান করলেন।

মোয়াজ্জেম আফরান/এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]