রাবি উপাচার্য ও উপ-উপাচার্যকে অপসারণে আলটিমেটাম

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৮:১৫ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০২১

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এম আব্দুস সোবহান ও উপ-উপাচার্য চৌধুরী মো. জাকারিয়ার অপসারণ চেয়ে সাতদিনের আলটিমেটাম দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র ফেডারেশন, ছাত্র অধিকার পরিষদ ও রাকসু আন্দোলন মঞ্চের নেতাকর্মীরা।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আমতলা চত্বরে সন্ত্রাস ও দুর্নীতিবিরোধী ঐক্যের ব্যানারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আলটিমেটাম দেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে নেতারা বলেন, ইউজিসির তদন্ত কমিটি সরেজমিনে দু’দফা তদন্ত করে ভিসি, প্রো-ভিসি ও রেজিস্ট্রারসহ বর্তমান প্রশাসনের বিরুদ্ধে ২৫টি অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রমাণ পায়। তদন্ত কমিটি ২০ ও ২১ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও দুর্নীতি দমন কমিশনে প্রতিবেদনটি জমা দেয়।

‘তদন্ত প্রতিবেদনে বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘটিত বিভিন্ন প্রশাসনিক ও আর্থিক অনিয়মের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি, প্রো-ভিসি ও রেজিস্ট্রারকে দায়ী করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ইতোমধ্যে পদত্যাগ করেছেন।’

‘তবে প্রমাণ পাওয়া সত্ত্বেও ভিসি, প্রো-ভিসিকে অপসারণ করার কার্যকর কোনো পদক্ষেপ দেখতে পাচ্ছি না, যা আমাদের আশাহত করেছে। আমরা মনে করি, অনিয়ম ও দুর্নীতিবাজ ব্যক্তিদের দ্বারা বিশ্ববিদ্যালয় চলতে পারে না এবং এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ও শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট করে। এ ব্যাপারে আমরা আচার্যসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি, প্রো-ভিসিসহ দুর্নীতিবাজ ব্যক্তিদের প্রশাসনিক দায়িত্ব থেকে অপসারণ ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে অপসারণ না করা পর্যন্ত সব ধরনের নিয়োগ স্থগিতের আহ্বান জানান তারা। আগামী ৭ দিনের মধ্যে দাবি না মানলে লাগাতার কর্মসূচির হুমকি দেন তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়কে স্থানীয় রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ থেকে মুক্ত রেখে প্রকৃত স্বায়ত্তশাসন নিশ্চিতের দাবিও জানান তারা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক মুরশিদুল আলম, ছাত্র ফেডারেশন রাবি সংসদের সাধারণ সম্পাদক মহব্বত হোসেন মিলন, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র অধিকার পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক আমান উল্লাহ ও দফতর সম্পাদক রাকিব হাসান।

সালমান শাকিল/এমআরএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]