রাবি প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৭:৫৬ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের স্টিয়ারিং কমিটির নির্বাচনে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন প্রাণ রসায়ন ও অনুপ্রাণবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. হাবিবুর রহমান। তিনি ৩২৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

অধ্যাপক হাবিবুর রহমানের একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. সুলতান-উল-ইসলাম টিপু পেয়েছেন ২৯৪ ভোট।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় নির্বাচনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও সদ্য বিদায়ী আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মজিবুর রহমান এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের জুবেরী ভবনের দক্ষিণ লাউঞ্জে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে। ৬১৯ জন শিক্ষক ভোট দেন।

একটি আহ্বায়ক ও ২০টি সদস্য পদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে দুইটি প্যানেলে আহ্বায়ক ও ২০ জন সদস্যসহ মোট ৪২ জন প্রার্থী অংশ নেন।

দুইটি প্যানেলের মধ্যে উপাচার্যপন্থী প্যানেল থেকে আহ্বায়কসহ চারজন সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। অন্যদিকে উপাচার্যবিরোধী প্যানেল থেকে আহ্বায়ক ছাড়া ১৬ জন সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

নির্বাচিত ২০ জন সদস্য হলেন-প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণবিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. মো জাহাঙ্গীর আলম সাউদ (লিটন), পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. জাহানুর রহমান (জাহান), ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক আব্দুল্লাহ-আল মামুন, ইনস্টিটিউট অব ইংলিশ অ্যান্ড আদার ল্যাঙ্গুয়েজের পরিচালক ড. শহীদুল্লাহ, রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. মো.তারিকুল হাসান (মিলন), গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. প্রদীপ কুমার পান্ডে, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ মুহাম্মদ আলী রেজা অপু, ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. আবু জাফর মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম (তৌহিদ), হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্যব্যবস্থা বিভাগের অধ্যাপক ড. তাজুল ইসলাম, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এস এম এক্রাম উল্যাহ, ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান-২ (মিজান), গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. নাসিমা আখতার, জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ও বায়োটেকনোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. শাহরিয়ার জামান (ববি), অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মাহমুদ রিয়াজী, আইন বিভাগের অধ্যাপক আবু নাসের মো. ওয়াহিদ (চন্দন), মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. ওমর ফারুক সরকার (ফারুক), উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এম শহিদুল আলম, গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আসাবুল হক, ইলেক্ট্রনিকস অ্যান্ড ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক আবু বকর ইসমাইল ও সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক ড. তানজিমা জোহরা হাবিব।

সালমান শাকিল/এসআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]