ডাকসুর সাবেক নেতা আকতারকে গ্রেফতারের নিন্দা ছাত্রফ্রন্টের

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৫:৩৫ পিএম, ১৪ এপ্রিল ২০২১

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক ও ছাত্র অধিকার পরিষদের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি আকতার হোসেনকে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) ছাত্রফ্রন্টের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সভাপতি সাদেকুল ইসলাম সাদিক স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ নিন্দা জানানো হয়।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) ডাকসুর সাবেক সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক ও ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ঢাবি শাখার সভাপতি আততারকে ক্যাম্পাস থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ছাত্রফ্রন্ডের ঢাবির সভাপতি সালমান সিদ্দিকী এবং সাধারণ সম্পাদক প্রগতি বর্মণ তমা যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ‘ক্যাম্পাস থেকে পুলিশ কর্তৃক এমন অগণতান্ত্রিকভাবে আকতার হোসেনের গ্রেফতার হওয়া আওয়ামী ফ্যাসিবাদী সরকারের একের পর এক দমন-পীড়নমূলক আচরণের নগ্ন বহিঃপ্রকাশ।’

তারা আরও বলেন, ‘একদিকে আমরা দেখছি, মহামারি পরিস্থিতিতে সরকার জনগণের যথাযথ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারছে না। অন্যদিকে যেই কথা বলছে, সমালোচনা করছে তার ওপরই নেমে আসছে দমন-পীড়নের খড়গ। একের পর এক চলছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা-গুম। চলছে পুলিশ ও ছাত্রলীগের যৌথ হামলার ঘটনা। স্বাধীনতার ৫০ বছরে দাঁড়িয়ে চলছে বাকস্বাধীনতা হরণের মতো নিকৃষ্টতম ফ্যাসিবাদী আচরণ। এমনকি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন দ্বারা তা এখন আইনগতভাবেই স্বীকৃত। এমতাবস্থায় কোনো ধরনের গ্রেফতারি পরোয়ানা ছাড়াই অসুস্থ অবস্থায় আকতার হোসেনকে ক্যাম্পাসে ফেরি করে জীবিকা উপার্জনকারীদের খাবার বিতরণের এক কর্মসূচি থেকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। যা ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তাহীনতারও দৃষ্টান্ত স্থাপন করে। আমরা এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি’

‘অবিলম্বে আকতারের মুক্তি দিতে হবে এবং সকল শিক্ষার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ জনগণের বাকস্বাধীনতা ও সকল প্রকার গণতান্ত্রিক অধিকার চর্চার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে’ বলেন তারা।

আল-সাদী ভূঁইয়া/এএএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]