বিএসএমএমইউতে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:৩০ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০২১

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস ও বাংলাদেশের প্রথম সরকারের শপথগ্রহণ দিবস উদযাপিত হয়েছে।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) দিবসটি উপলক্ষে সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের বি ব্লকে স্থাপিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন।

শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন শেষে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রত্যেকে তাঁর নিজ নিজ দায়িত্ব ও কর্তব্য সঠিক ও যথাযথভাবে পালনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়কে শিক্ষা, সেবা ও গবেষণায় সামনের দিকে এগিয়ে নেয়া ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসের শপথ হোক।

উপাচার্য তার বক্তব্যে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ও কোভিড-১৯-এর ভ্যাকসিন নেয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান।

উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ ডা. মিল্টন হলে সহযোগী অধ্যাপকদের সঙ্গে একটি গুরুত্বপূর্ণ সভায় মিলিত হয়ে কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে চিকিৎসা শিক্ষা, গবেষণা ও সেবা কার্যক্রম স্বাস্থ্যবিধি মেনে এগিয়ে নেয়ার নির্দেশনা প্রদান করেন।

এ সময় উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. এ কে এম মোশাররফ হোসেন, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, সার্জারি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমেদ, নার্সিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এ বি এম আব্দুল হান্নান, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবুর রহমান দুলাল, গ্রন্থাগারিক অধ্যাপক ডা. মো. হারিসুল হক, হল প্রভোস্ট অধ্যাপক ডা. এস এম মোস্তফা জামান, পরিচালক (হাসপাতাল) বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ডা. মো. জুলফিকার আহমেদ আমিন, অতিরিক্ত পরিচালক ডা. নাজমুল করিম মানিক প্রমুখসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অফিস প্রধান, পরিচালক, চিকিৎসক, কর্মকর্তা, নার্স, মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ও কর্মচারীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে উপস্থিত ছিলেন।

এমইউ/এআরএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]