জবি শিক্ষার্থী রবিনকে বাঁচাতে প্রয়োজন ২০ লাখ টাকা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক জবি
প্রকাশিত: ০৭:১০ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০২১

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের স্নাতকোত্তর প্রথম সেমিস্টারের মেধাবী শিক্ষার্থী রবিন কুমার হাওলাদার ‘লিউকেমিয়া’ নামক এক জটিল রোগে আক্রান্ত। চিকিৎসা বিজ্ঞানে যা এক ধরনের ব্লাড ক্যান্সার।

রবিন রোগাক্রান্ত হওয়ায় তার পরিবার, সহপাঠী ও শিক্ষকদের মাঝে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। তার জন্য দোয়া ও সহযোগিতা চেয়েছেন তার স্বজন ও সহপাঠীরা। রবিনের চিকিৎসার জন্য তাকে দ্রুত চেন্নাইয়ে নিতে হবে এবং এতে প্রায় ২০ লাখ টাকার প্রয়োজন- জানিয়েছেন তার চিকিৎসকরা।

রবিনের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের হেমাটোলজি বিভাগে চিকিৎসাধীন তিনি। লকডাউন-পরবর্তী চিকিৎসার জন্য ইতোমধ্যে ভারতে নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন সেখানকার চিকিৎসকরা।

তার বর্তমান অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, রবিনের যথাযথ চিকিৎসার জন্য ভারতের চেন্নাইয়ে নিতে হবে। এতে প্রাথমিকভাবে প্রায় ২০ লাখ টাকা প্রয়োজন। টাকার পরিমাণ আরও বাড়তে পারে, যা তার পরিবারের পক্ষে বহন করা সম্ভব নয়।

jagonews24

রবিনের সহপাঠীরা জানান, ক্যাম্পাসে খুবই প্রাণচঞ্চল ও হাসি-খুশি ছিলেন তিনি। সবার সঙ্গে ভালো ব্যবহার করতেন। কিন্তু লিউকোমিয়া নামক মরণব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ায় তারা সবাই হতবাক। এমতাবস্থায় বন্ধুর জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন এবং তার পরিবারের কথা বিবেচনা করে চিকিৎসা সহায়তার জন্য সবার কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন।

রবিন কুমারের সহপাঠী মাসুম বিল্লাহ বলেন, ‘রবিন সবসময় পড়াশোনা নিয়েই থাকতে ভালোবাসতো। অবশ্য তার জন্য আমরা অনেক মজা করতাম ওকে নিয়ে। কিন্তু রবিনের এভাবে হঠাৎ অসুস্থ হওয়া আমরা মেনে নিতে পারছি না। আল্লাহ চাইলে রবিন আবার আমাদের মাঝে সুস্থ হয়ে ফিরে আসবে, আর এজন্য সবার একটু সহযোগিতা দরকার। সবাইকে যায় যার জায়গা থেকে রবিনের জন্য এগিয়ে আসার অনুরোধ করছি।’

রবিনের জন্য সাহায্য করতে চাইলে এই নম্বরগুলোতে বিকাশ/রকেট/নগদের মাধ্যমে টাকা পাঠাতে পারবেন- চপল রহমান (রবিনের বন্ধু) বিকাশ : ০১৯৭৪-৮৬৪৮৪২। মাসুম বিল্লাহ (রবিনের বন্ধু) রকেট : ০১৫২১-৫০২১৩৫০। আশিকুজ্জামান (রবিনের বন্ধু) নগদ : ০১৭৫৯-১৩১৯৯১।

এমএসএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]