পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় সেপের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

ক্যাম্পাস প্রতিবেদক
ক্যাম্পাস প্রতিবেদক ক্যাম্পাস প্রতিবেদক ঢাকা কলেজ
প্রকাশিত: ০৯:৪৫ এএম, ০৯ জুন ২০২১

বিশ্ব পরিবেশ দিবসে পরিবেশবাদী সংগঠন ‘চেঞ্জ দ্য আর্থ ফর পিপল’র (সেপ) চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীতে বৃক্ষরোপণ করা হয়েছে। শনিবার (৫ জুন) দুপুরে ঢাকা কলেজে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাত কলেজের ফোকাল্ট ফয়েন্ট ও ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আইকে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার।

এ সময় তিনি বলেন, প্রতি বছর অসংখ্য গাছ কাটা হচ্ছে। ফলে বিশ্বজুড়ে বাড়ছে উষ্ণায়ন, অনাবৃষ্টিসহ নানা প্রাকৃতিক সংকট। জলবায়ুসহ এসব প্রভাব মোকাবিলায় পর্যাপ্ত বৃক্ষরোপণের বিকল্প নেই। আমরা ঢাকা কলেজ প্রশাসন প্রতি বছর অসংখ্য বৃক্ষরোপণ করে থাকি। যার বড় প্রমাণ ইট পাথরের নগরীতে এক খণ্ড সবুজ ক্যাম্পাস। তবে পরিবেশের সুরক্ষায় শিক্ষার্থীদের এগিয়ে আসা আমাকে মুগ্ধ করেছে। সামাজিক কর্মকাণ্ড একজন মানুষের মানসিক বিকাশকে ত্বরান্বিত করে। বিপথগামী হওয়া থেকে ফিরিয়ে রাখে।

তিনি আরও বলেন, চেঞ্জ দ্য আর্থ ফর পিপল (সেপ) আমাকে তাদের উদ্যোগের মাধ্যমে আকৃষ্ট করেছে। সংগঠনটির চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে প্রত্যাশা করছি তারা আরও এগিয়ে যাক। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় কাণ্ডারির ভূমিকায় উত্তীর্ণ হোক।

jagonews24

সেপের সাধারণ সম্পাদক আফতাব উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ২০১৭ সালে সেপের যাত্রা। সবার আন্তরিকতা ও সহযোগিতায় হাঁটি হাঁটি পা পা করে চার বছর পেরিয়ে পঞ্চম বর্ষে পদার্পণ করেছে। পরিবেশের সুরক্ষায় সেপ শুরু থেকেই অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। আমরা ইতোমধ্যে রাজধানীর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা কলেজসহ দেশের উপকূলীয় অঞ্চল ও বিভিন্ন জেলার নতুন সড়ক, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পতিত জমিতে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করে আসছি। সেই সঙ্গে ছাদ বাগান, বাড়ির আঙিনায় সবজি চাষেও অন্তত ২০টি পরিবারকে উদ্বুদ্ধ করেছি।

তিনি আরও বলেন, এছাড়াও অন্যান্য সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী কর্মসূচিও পরিচালনা করে আসছি আমরা। সবার সহযোগিতায় এই ধারা অতীতের ন্যায় আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। সেই সঙ্গে করোনা সংক্রমণের মধ্যেও সেপের কর্মসূচিতে যারা অংশ নিয়েছেন আমি সংগঠনের পক্ষ থেকে তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি ঢাকা কলেজ প্রশাসন ও ঢাকা কলেজ সাংবাদিক সমিতিকে। তাদের বিশেষ সহযোগিতায় কর্মসূচিটি সফল হয়েছে।

এতে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা কলেজ উত্তর ছাত্রাবাসের তত্ত্বাবধায়ক মো. ওবাইদুল করিম, দক্ষিণ হলের তত্ত্বাবধায়ক মোহাম্মদ আনোয়ার মাহমুদ, পশ্চিম হলের তত্ত্বাবধায়ক সকুল চন্দ্র পাল, আখতারুজ্জামান ইলিয়াস হলের তত্ত্বাবধায়ক মো. আলতাফ হোসেন, দক্ষিণায়ন হলের তত্ত্বাবধায়ক মো. নাছির উদ্দিন, উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক মো. ইদ্রিস হাওলাদার, হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. শওকত আলী, ঢাকা কলেজ সাংবাদিক সমিতির সভাপতি বিল্লাল হোসেন সাগর, মো. নাজমুস সাকিব, সেপের সাংগঠনিক সম্পাদক মুশফিকুর রহমান, মিডিয়া বিষয়ক সম্পাদক ও ঢাকা কলেজ সাংবাদিক সমিতির সদ্য সাবেক সভাপতি মাহমুদুল হাসান, অফিস সম্পাদক হোসাইন আহমাদ জুবায়ের, সদস্য খাজা নিজামুদ্দিন তুমন প্রমুখ।

নাহিদ হাসান/এআরএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]