কারাবন্দি ছেলের পরীক্ষা নিতে ভিসির কাছে বাবা-মার স্মারকলিপি

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৩১ পিএম, ১৩ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৬:৪৬ পিএম, ১৩ জুন ২০২১

মোদিবিরোধী আন্দোলনে অংশ নিয়ে আটক হওয়া কারাবন্দি বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাবেক সভাপতি, বর্তমান সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের পরীক্ষা গ্রহণের যথাযথ ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণের অনুরোধ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্যকে স্বারকলিপি দিয়েছে তাদের বাবা-মা।

কারাবন্দি শিক্ষার্থীরা হলেন- লোকপ্রশাসন বিভাগের ২০১৪-১৫ সেশনের শিক্ষার্থী ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাবি শাখার সাবেক সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা, আইন বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক ও ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাবি শাখার সভাপতি আখতার হোসেন, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৬-১৭ সেশনের শিক্ষার্থী এবং ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক আকরাম হোসেন।

রোববার (১৩ জুন) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে ছাত্র অধিকার পরিষদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্যোগে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে সঞ্চালনা করেন সংগঠনটির ঢাবি শাখার দফতর সম্পাদক সালেহ উদ্দিন সিফাত।

অভিভাবকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাবি শাখা ছাত্র অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আকরাম হোসাইনের পিতা হাফেজ আলমগীর হোসেন; সাবেক সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লার পিতা রফিকুল ইসলাম মোল্লা এবং মাতা হাসিনা বেগম। এ সময় কান্নায় ভেঙে পড়েন অভিভাবকরা।

সংবাদ সম্মেলনে অভিভাবকরা বলেন, আমাদের ছেলেরা একেকজন দেশের একেকটি অঞ্চল থেকে উঠে এসে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছে। এই পরিবারহীন শহরে তাদের প্রাতিষ্ঠানিক অভিভাবক আপনারাই। আপনি অবগত থাকবেন, উপরোক্ত তিনজনের জামিন আবেদন করা হলেও নিম্ন আদালত তা নামঞ্জুর করেছেন। করোনা পরিস্থিতির কারণে উচ্চ আদালতের শরণাপন্ন হতেও বেশ বেগ পেতে হচ্ছে। এদিকে বিভিন্ন বিভাগের অনার্স ও মাস্টার্সের চূড়ান্ত পরীক্ষার সময়সূচি ঘোষণা করা হচ্ছে। আগামী মাসেই পরীক্ষাগুলো অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আমাদের সন্তানরা তাদের চূড়ান্ত পরীক্ষাগুলো কারাগার থেকে হলেও অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক। মিথ্যা মামলার কারণে তারা শিক্ষাজীবনে পিছিয়ে পড়তে চায় না। তারা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ পূর্বক তাদের শিক্ষার অধিকারটুকু চায়।

তারা আরও বলেন, অত্র তিনটি বিভাগের আসন্ন চূড়ান্ত পরীক্ষাগুলোতে আমাদের সন্তানদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে একটি যথাযথ পদক্ষেপ নিতে আপনার কাছে বিনীত অনুরোধ করছি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাদের সন্তানদের পরীক্ষা গ্রহণে সম্মত হলে আমরা মহামান্য আদালতের কাছে কারাগার থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ করে দেয়ার জন্য আবেদন করবো। আশা করি, আপনি আমাদের নির্যাতিত সন্তানদেরকে শিক্ষাজীবনে পিছিয়ে পড়তে দেবেন না।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে অনুরোধ জানিয়ে তারা আরও বলেন, আমাদের ছেলেরা কারো ক্ষতি করেনি, শুধুমাত্র রাজনৈতিক কারণে তারা আজ কারাবন্দি। উপাচার্যের নিকট অনুরোধ- আপনি দয়া ও সহানুভূতির হাত বাড়িয়ে দিয়ে আমাদের সন্তানদের অন্তত পরীক্ষা দেয়ার ব্যবস্থা করুন। পিতা-মাতা হিসেবে বিনা দোষে ছেলেদের প্রতি এমন নিষ্ঠুর আচরণ আমরা আর সহ্য করতে পারছি না।

সংবাদ সম্মেলন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর স্বারকলিপি দিয়ে কারাবন্দি শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা গ্রহণের ব্যবস্থা করতে অনুরোধ জানান অভিভাবকরা।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান জাগো নিউজকে বলেন, শিক্ষার্থীদের বাবা-মা এসেছিলেন। আমরা তাদের পরামর্শ দিয়েছি। কারাগারে থাকলে তারা সেখানকার নিয়মেই পরীক্ষা দিতে পারবে। এক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সহযোগিতার ঘাটতি থাকবে না।

আল সাদী/এআরএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]