খুবিতে ৫৫ লাখ টাকা ব্যয়ে গবেষণা যন্ত্র স্থাপন

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০২:৩৫ পিএম, ২৫ আগস্ট ২০২১

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সয়েল, ওয়াটার অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ডিসিপ্লিনের গবেষণাগারে অত্যাধুনিক একটি যন্ত্র স্থাপন করা হয়েছে। এতে খরচ হয়েছে ৫৫ লাখ টাকা। যন্ত্রটির নাম ‘অ্যাটোমিক অ্যাবজর্বশন স্পেকট্রোফটোমিটার।’

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে ডিসিপ্লিনে ‘অ্যাটোমিক অ্যাবজর্বশন স্পেকট্রোফটোমিটার’ না থাকায় মাটিতে অত্যাবশ্যকীয় মাইক্রো নিউট্রিয়েন্টের পরিমাণ এবং ভারী ধাতুর (যেমন-লেড, মার্কারি, ক্যাডমিয়াম, আর্সেনিক ইত্যাদি) উপস্থিতি বিশ্লেষণ করা যাচ্ছিলো না। এই কাজগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে থেকে করতে হতো। যেটি ছিল ব্যয়বহুল ও সময় সাপেক্ষ। বর্তমানে এই যন্ত্রটির স্থাপনের মাধ্যমে কোনো নির্দিষ্ট স্থানের মাটিতে কতটুকু পরিমাণে সার দেওয়া প্রয়োজন তা নির্ণয় করা যাবে। এছাড়া, শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও গবেষকদের গবেষণার কাজও সহজ হবে।

যন্ত্রটি উদ্বোধন উপলক্ষে সোমবার (২৩ আগস্ট) ডিসিপ্লিনের প্রধান অধ্যাপক খোন্দকার কুদরতে কিবরিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পরে সুইচ টিপে যন্ত্রটির উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহমুদ হোসেন।

jagonews24

তিনি বলেন, ‘গবেষণার কাজে অত্যাধুনিক এ যন্ত্রটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। গবেষণাবান্ধব পরিবেশ তৈরির স্বার্থে প্রশাসনিক সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।’এসময় শিক্ষকদের গবেষণার প্রতি যত্নবান হওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জীববিজ্ঞান স্কুলের ডিন অধ্যাপক খান গোলাম কুদ্দুস, বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং (বিজিই) ডিসিপ্লিনের প্রধান অধ্যাপক ড. শেখ জুলফিকার হোসেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সয়েল, ওয়াটার অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষক অধ্যাপক মো. সানাউল ইসলাম। এসময় জীববিজ্ঞান স্কুলের অধীন অন্যান্য ডিসিপ্লিনের প্রধান ও সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও উপস্থিত ছিলেন।

এফআরএম/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]