শেকৃবিতে বিশ্ব অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ পালিত

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৮:২৯ এএম, ২৪ নভেম্বর ২০২১

অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহারে সচেতনতা বৃদ্ধিতে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে পালিত হলো ‘বিশ্ব অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ-২০২১’।

এ উপলক্ষে মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের এএসভিএম অনুষদের সেমিনার কক্ষে এক কর্মশালার আয়োজন করা হয়। বিশ্ব খাদ্য সংস্থার সহযোগিতায় বাংলাদেশ এএমআর রেসপন্স অ্যালায়েন্স এ কর্মশালার আয়োজন করে।

কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেকৃবি উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া। সভাপতিত্ব করেন এনিম্যাল সায়েন্স অ্যান্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. লাম-ইয়া আসাদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মেডিসিন অ্যান্ড পাবলিক হেলথ বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কে বি এম সাইফুল ইসলাম, এঙ্কটাড, বিশ্ব খাদ্য সংস্থা বাংলাদেশের টিমলিডার ড. এরিক ব্রাম, বিপিআইসিসি প্রতিনিধি প্রফেসর ড. ইলিয়াস হোসেন, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের সাবেক উপ-পরিচালক ড. বিধান চন্দ্র দাস। অনুষ্ঠানে ৩০ জন ইন্টার্ন ভেটেরিনারিয়ানসহ অনুষদের শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া বলেন, অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহারে সকলকে সচেতন হতে হবে। অ্যান্টিবায়োটিক নির্বাচন, প্রয়োগ, ব্যবহার ও প্রত্যাহারকাল যথাযথ নিয়মনীতি মেনে পালন করতে হবে। পাশাপাশি প্রান্তিক খামারি, ওষুধ বিক্রেতাসহ সাধারণ ভোক্তাদেরও যথেচ্ছ অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহারের ক্ষতিকর দিক সম্পর্কে সচেতন হতে হবে।

প্রতিবছর সারাবিশ্বে ১৮-২৪ নভেম্বর বিশ্ব অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ পালন করা হয়ে থাকে। দিবসটির এ বছরের প্রতিপাদ্য ‘হোক সচেতনতা বিস্তার, চাই অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্স থেকে নিস্তার’।

মো. রাকিব খান/বিএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]