শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় ডিআইইউসাস'র নিন্দা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪০ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২২

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) সাধারণ শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে পুলিশের হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি সাংবাদিক সমিতি (ডিআইইউসাস)।

সোমবার (১৬ জানুয়ারি) ডিআইইউসাস’র দফতর সম্পাদক কাজী ফিরোজ আহমেদ পারভেজ স্বাক্ষরিত এক প্রতিবাদলিপিতে এ নিন্দা জানানো হয়।

প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়, রোববার (১৫ জানুয়ারি) রাতে যৌথ বিবৃতিতে ডিআইইউসাস’র সভাপতি জাফর আহমেদ খান শিমুল ও সাধারণ সম্পাদক ওয়াহিদ তাওসিফ মুছা বলেন, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শনিবার (১৪ জানুয়ারি) ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন শিক্ষার্থীদের ওপর যে হামলা চালিয়েছিল সেখানে সরাসরি শাবির প্রক্টর জড়িত ছিল বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে জানা যায়। সেই হামলার প্রতিবাদে রোববার পুনরায় আন্দোলন করার সময় ভিসির মদদে পুলিশ নিয়ে এসে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করা হয়। এর চেয়ে ন্যক্কারজনক ও ঘৃণ্য ঘটনা আর হতে পারে না। যাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে নিরাপত্তা দেওয়ার কথা তারাই ক্যাম্পাসে পুলিশ নিয়ে এসে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। অনতিবিলম্বে এ হামলার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

সাংবাদিক নেতারা মনে করেন, শিক্ষার্থীদের দাবি আদায়ের পথে বাধা সৃষ্টি করার অধিকার প্রশাসনের নেই। আজকের এ হামলা বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ইতিহাসে চরম লজ্জার। তাই, এই ন্যক্কারজনক ঘটনার সঙ্গে জড়িত সবার শাস্তির দাবি জানান তারা।

জানা যায়, এদিন বিকেল পৌনে ৩ টার দিকে নিজ কার্যালয় থেকে বাসভবনে যাওয়ার পথে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ক্ষোভের মুখে পড়েন উপাচার্য। এসময় তিনি আইআইসিটি ভবনে আশ্রয় নেয়। সন্ধ্যা সোয়া ৬টা নাগাদ পুরো ক্যাম্পাসজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে পুলিশ সদস্যরা এবং অবস্থান নেওয়া শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ শুরু করে পুলিশ। শিক্ষার্থীরাও ইট-পাটকেল ছুড়তে শুরু করে। একপর্যায়ে পুলিশ সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে। এতে কোষাধ্যক্ষসহ আহত হন আন্দোলনরত অনেক সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

এমএইচএম/এমএএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]