শাবিপ্রবি এলাকায় বন্যার পানি, বিপাকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক শাবিপ্রবি
প্রকাশিত: ০৩:৫২ পিএম, ১৯ মে ২০২২
শাবিপ্রবি সংলগ্ন এলাকায় ঢুকে পড়েছে বন্যার পানি

উজানের পাহাড়ি ঢল ও ভারী বৃষ্টির কারণে সিলেটের বিভিন্ন এলাকায় বন্যা দেখা দিয়েছে। পানি উঠেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) সংলগ্ন এলাকাগুলোতেও। এ কারণে ওইসব এলাকায় বসবাসরত শাবিপ্রবির শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা বিপাকে পড়েছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, পর্যাপ্ত আবাসন ব্যবস্থা না থাকায় বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন সুরমা আবাসিক এলাকা, তপোবন আবাসিক এলাকা, নেহাড়ীপাড়াসহ আশপাশের বিভিন্ন মেস ও বাসার ফ্ল্যাটে বসবাস করেন শাবিপ্রবির বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। পানি বাড়ায় কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন তারা। কোথাও কোথাও যাতায়াতের জন্য নৌকা ব্যবহার করা হচ্ছে। এছাড়া জরুরি প্রয়োজনে কেউ বের হলে তাদের পোশাক ভিজিয়ে কাজ সেরে বাসায় ফিরতে হচ্ছে।

jagonews24

এদিকে, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গায়ও জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। ক্যাম্পাসের রেজিস্ট্রার বিল্ডিংয়ের পেছনে, ছাত্রী হলের আশপাশে, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের আশপাশে এবং খেলার মাঠের দক্ষিণ দিকে পানি জমেছে। এসব পানির সঙ্গে বিভিন্ন বর্জ্য মিশে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হচ্ছে।

দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন ‘এ’ ও ‘বি’-এর মাঝে চেতনা একাত্তরের পাশ দিয়ে পানি নিষ্কাশনের জায়গা রয়েছে। তবে এ জায়গায় বিভিন্ন ময়লা-আবর্জনার কারণে পানি নিষ্কাশনের গতি কমে গেছে। যার ফলে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে।

jagonews24

এদিকে, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের এ অবস্থা বিবেচনা করে বিভিন্ন বিভাগের সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। গণিত বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক মাহবুবুর রশিদ জানান, তার বিভাগের সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা চলছে। বন্যার কারণে তৃতীয় বর্ষের একটি পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। এছাড়া বন্যার কারণে তিনিও দুর্ভোগে আছেন বলে জানিয়েছেন।

সুরমা এলাকায় বসবাসরত বিশ্ববিদ্যালয়ের পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের ২০১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী একরামুল হোসাইন বলেন, তিনদিন হয়েছে রুমে পানি ঢুকেছে। রুমের জিনিসপত্র নিয়ে বেশ ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে। মেসের সব জায়গায় পানি ঢুকে যাওয়াতে রান্না করা সম্ভব হচ্ছে না। বিদ্যুৎও নেই।

তিনি আরও বলেন, সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা চলায় পড়াশোনা চলমান রাখতে আপাতত বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে বন্ধুর রুমে এসেছি।

এমআরআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]