মিছিলে অংশ নেওয়ায় জাবি ছাত্রদল কর্মীকে মারধরের অভিযোগ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৮:২৮ পিএম, ২৬ মে ২০২২

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) শাখা ছাত্রদল আয়োজিত মিছিলে অংশ নেওয়ায় একজনকে হলের গেস্টরুমে নিয়ে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

ঢাবিতে ছাত্রদলের মিছিলে হামলার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সকালে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে শাখা ছাত্রদল এ মিছিলের আয়োজন। মিছিল শেষ করে ফেরার পথে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন গেরুয়া এলাকা থেকে ওই ছাত্রদল কর্মীকে শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী তুলে নেয় বলে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগকারী ছাত্রদল কর্মী রাজু হাসান রাজন বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের ৪৬তম ব্যাচের শিক্ষার্থী।

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘মিছিল শেষে ফেরার পথে ছাত্রলীগের কয়েকজন আমাকে গেরুয়া থেকে তুলে মীর মশাররফ হোসেন হলের গেস্টরুমে নিয়ে যান। সেখানে জিজ্ঞাসাবাদ এবং শারীরিক নির্যাতন করে। পরে তারা স্বীকারোক্তি দিতে বলে যে কোনো রকম শারীরিক নির্যাতন করা হয়নি। তাদের চাপে আমি স্বীকারোক্তি দেই। তারা সেটির ভিডিও করে রেখেছে।

হল সূত্রে জানা যায়, রাজনকে হলের গেস্টরুমে নিয়ে নির্যাতনে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ৪৬তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সাগর সিদ্দিকী, উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের ৪৩তম ব্যাচের বিপ্লব হোসেন, ইতিহাস বিভাগের ৪৩তম ব্যাচের প্রীতম আজাদসহ আরও কয়েকজন জড়িত।

এ বিষয়ে সাগর সিদ্দিকী জাগো নিউজকে বলেন, ক্যাম্পাসের সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝে স্বাধীনতাবিরোধী মতাদর্শসহ নাশকতামূলক নানা কর্মকাণ্ডে রাজন জড়িত থাকায় কয়েকজন শিক্ষার্থী তাকে হলের গেস্টরুমে নিয়ে আসে। তার কাছে এসব বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সে এসব কাজ করবে না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়ে বের হয়ে যায়। তাকে শারীরিক নির্যাতন করা হয়নি।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আ স ম ফিরোজ-উল-হাসান বলেন, ছাত্রদল কর্মীর উপর মারধরের কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। তবে সাবেক এক শিক্ষার্থী ফোনে এ বিষয়ে জানালে আমি মীর মোশারফ হোসেন হলে যোগাযোগ করি। ছাত্রদলের ঐ কর্মীর খোঁজ কেউ দিতে পারেনি।

মাহবুব সরদার/এএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]