বাঁচতে চান ব্রেন স্ট্রোক করা মোসাব্বেরুল

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক রাবি
প্রকাশিত: ০৭:২৩ পিএম, ২৭ মে ২০২২

বাঁচতে চান ব্রেন স্ট্রোক করা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সাবেক শিক্ষার্থী মোসাব্বেরুল ইসলাম (৪০)। গত ১৬ মে স্ট্রোক করে তিনি খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজের আইসিইউতে ভর্তি আছেন।

মোসাব্বেরুল ইসলাম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের ২০০০-২০০১ শিক্ষাবর্ষের সাবেক শিক্ষার্থী। তার বাড়ি সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার গয়রা গ্রামে। স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে ঢাকার উত্তর বাড্ডায় থাকেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে অডিট সেকশনে কাজ করতেন মোসাব্বেরুল। অফিসের কাজে গত ১৬ মে বাগেরহাটের মোল্লার হাট উপজেলায় একটি ব্যাংকের অডিটে যান। সেখানে ২টার দিকে তিনি স্ট্রোক করেন। পরে তার সহকর্মীরা চিকিৎসার জন্য তাকে একটি স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় খুলনার সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে তিনি সেখানে জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন।

ব্রেন স্ট্রোক করার ফলে তার মাথায় প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা। কিন্তু ব্যয়বহুল চিকিৎসার খরচ বহন করার সামর্থ্য তার পরিবারের নেই।

মোসাব্বেরুল ইসলামের স্ত্রী শেখ নিগার সুলতানার বলেন, ‘ছোট এক বাচ্চাকে নিয়ে আমাদের সংসার ভালোই চলছিল। সুখেই ছিলাম। কিন্তু তার ব্রেন স্ট্রোকের পর মেয়েটা বাবাকে দেখতে না পেরে বেপরোয়া হয়ে গেছে। সামলানো কঠিন হচ্ছে।’

তিনি বলেন, আমরা মধ্যবিত্ত পরিবারের। স্বামীর চিকিৎসার জন্য এরই মধ্যে চার লক্ষাধিক টাকা খরচ করে ফেলেছি। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য আরও টাকা লাগবে। কোথায় পাবো এত টাকা? স্বামীর চিকিৎসায় বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়েল ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক অহিদুল ইসলাম বলেন, মানবিক সাহায্যের জন্য আমরা একটি আবেদন পেয়েছি। সামর্থ্য অনুযায়ী সহযোগিতা করা হবে।

মনির হোসেন মাহিন/এসআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]