জবিতে রোভারের সাবেক সভাপতির ওপর ছাত্রলীগের হামলা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৫:৩৪ এএম, ২৫ জুন ২০২২
আহত আহসান হাবিব

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রোভার ইন কাউন্সিলের সাবেক সভাপতি আহসান হাবিবকে মারধর করেছেন ছাত্রলীগের কর্মীরা। গুরুতর আহত আহসান হাবিবকে রাজধানীর সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। শুক্রবার (২৪ জুন) বিকেল সাড়ে ৬টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, শুক্রবার রোভার ইন কাউন্সিলের নির্বাচন শেষে কেন্দ্র থেকে বের হন কাউন্সিলের সাবেক সভাপতি আহসান হাবিব। ক্যাম্পাসের মূল ফটকে আসলে নাজমুল হাসান মুন্নার নেতৃত্বে ছাত্রলীগ কর্মীরা তারও পর অতর্কিত হামলা করেন। এসময় তারা আহসান হাবিবের মানিব্যাগ নিয়ে যান। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় রাজধানীর সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। হামলায় জড়িতরা সবাই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহিম ফরাজির অনুসারী বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সন্ধ্যার একটু আগে আহসান হাবিব বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে আসলে ছাত্রলীগকর্মীরা তার ওপর অতর্কিত হামলা করেন। হামলায় একাউন্টটিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের শিক্ষার্থী মুন্না, ঈসাসহ ৮-১০ জন অংশ নেন। এসময় তারা লোহার হাতল দিয়ে আহসান হাবিবকে আঘাত করেন। এসময় রোভার স্কাউটের সদস্যরা ঠেকাতে আসলে তাদের বাধা দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহিম ফরাজি বলেন, আমি এ ব্যাপারে কিছু জানি না। কাকে মারছে, কারা মারছে। একটু আগেও প্রক্টরের সঙ্গে কথা বলেছি, তিনিও কিছু বলেননি। আমি খোঁজ নিচ্ছি।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রোভার স্কাউট গ্রুপের সম্পাদক অধ্যাপক ড. মনিরুজ্জামান খন্দকার বলেন, আমি বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হয়েছি এবং যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। এ ধরনের ঘটনার জন্য আমরা কখনো প্রস্তুত থাকি না এবং প্রস্তুত থাকার প্রয়োজনও বোধ করি না। এমন ঘটনা খুবই দুঃখজনক।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল বলেন, রোভার স্কাউটের যিনি সম্পাদক তিনি লাইফ অ্যান্ড আর্থ সায়েন্স অনুষদের ডিন। স্যারের সঙ্গে একাধিকবার কথা হয়েছে। আগামীকাল (শনিবার) ওনারা অভিযোগ দিলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবো।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রোভার স্কাউটের সদস্যরা হামলার বিচার না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দিয়েছেন।

রায়হান আহমেদ/ইএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]