ঢাবিতে বন্যার্তদের জন্য কনসার্ট

আগামীকাল (২৭ জুন) থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) দুই দিনব্যাপী ‘বন্যার্তদের জন্য কনসার্ট’ করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ টিএসসিকেন্দ্রিক সব সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।

এতে ওয়ারফেইজ, আর্ক, অ্যাশেজ, আভাস, ভাইকিং, সহজিয়াসহ দেশের ১৭টি ব্যান্ড দল ও মেহরিন, পারভেজ সাজ্জাদ, জয় শাহরিয়ার, নবীন খানরা অংশগ্রহণ করবেন।

দুই দিনব্যাপী এই কনসার্ট প্রতিদিন দুপুর ২টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলবে। কনসার্টের টিকিট মূল্য ৩০০ টাকা। টিকিট থেকে পাওয়া পুরো অর্থ বন্যার্তদের জন্য ব্যয় করা হবে বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

রোববার (২৬ জুন) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে আয়োজক কমিটি।

এই কমিটিতে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছকে আহ্বায়ক, ঢাবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌসকে সদস্য সচিব এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. নিজামুল হক ভূঁইয়াকে উপদেষ্টা করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে গোলাম কুদ্দুছ বলেন, আন্দোলন-সংগ্রামসহ দেশের যেকোনো দুর্যোগ ও মানবিক বিপর্যয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার সব সময় পাশে ছিল। ১৯৮৮ ও ৯৮ সালে দেশে যে সবচেয়ে বড় প্লাবন হয়েছিল, সেই সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় টিএসসি ছিল সরকারের পরে বৃহত্তম ত্রাণ তৎপরতা কেন্দ্র। এখানে শত শত ছাত্র-ছাত্রী ও সংস্কৃতিকর্মী কাজ করেছে।

গোলাম কুদ্দুছ বলেন, শিক্ষার্থীরা তাদের নিজেদের মতো করে মাঠ পর্যায়ে কালেকশন করছে, আমরাও বিভিন্ন ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগাযোগ করছি। দশ লাখ টাকার মতো কমিটমেন্ট আমরা পেয়েছি। এর মধ্যে চিত্রনায়ক অনন্ত জলিল পাঁচ লাখ, তার স্ত্রী বর্ষা এক লাখ টাকা দেওয়ার কমিটমেন্ট দিয়েছেন। আরও কয়েকজন এক লাখ টাকা করে দেওয়ার কথা বলেছেন। আমরা এরকম আরও ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। আজকের মধ্যেই আমরা ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট করব।

আগামী ৩০ জুনের পর থেকে সুনামগঞ্জে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য, ওষুধসহ প্রয়োজনীয় ‘উপহার’ সামগ্রী বিতরণ করা হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, কনসার্ট থেকে প্রাপ্ত অর্থ ব্যয় করা হবে বন্যার্ত মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য। কনসার্টে যেসব ব্যান্ড দল অংশ নেন, তাদের কেউ পারিশ্রমিক নেবে না। পুরো অর্থ বন্যার্তদের জন্য ব্যয় করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন সদস্য সচিব অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস, টিএসসির পরিচালক সৈয়দ আলী আকবর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম পান্থ এবং কমিটির সদস্য ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদের সভাপতি দিগার মোহাম্মদ কৌশিক।

আল-সাদী ভূঁইয়া/এমএইচআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]