চবিতে ৪ ছাত্রীর হাতাহাতি: তদন্ত কমিটিসহ একজনকে শোকজ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৯:১৮ এএম, ১৩ আগস্ট ২০২২
ফাইল ছবি

কথা কাটাকাটির জেরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের চার নারী কর্মীর মধ্যে হাতাহাতির ঘটনায় চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া হল কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) সন্ধ্যায় এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া হলের প্রভোস্ট ড. মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সোহেল।

তদন্ত কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয়েছে হলটির সিনিয়র শিক্ষক ড. শাহ আলমকে। এছাড়া হলের আবাসিক শিক্ষক উম্মে হাবিবাকে সদস্য সচিব এবং সহকারী প্রক্টর আহসানুল কবির ও হাসান মুহাম্মদ রোমানকে সদস্য করা হয়েছে। আগামী পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত কমিটিকে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে৷

এছাড়া আবাসিক হলে অনিয়ম ও বিশৃঙ্খলার অভিযোগে তাসফিয়া জাসরাত নোলককে কারণ দর্শানের নোটিশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়েছে তাকে।

দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া হলের প্রভোস্ট ড. মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সোহেল বলেন, গতরাতে হলের ২০৩ নম্বর কক্ষে হাতাহাতির ঘটনায় জড়িতরা পাল্টাপাল্টি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। এছাড়া হলের সিনিয়রদের সঙ্গে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ, হলের পড়াশোনার পরিবেশ নষ্ট করাসহ অনেকগুলো লিখিত অভিযোগ পাওয়ায় তাসফিয়া জাসরাত নোলককে শোকজ করা হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) রাতে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া হলের ২০৩ নম্বর কক্ষে ৪ ছাত্রীর মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রলীগের উপ-স্কুলছাত্র বিষয়ক সম্পাদক ও সংস্কৃত বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সিমা আরা শিমু, উপ-ছাত্রীবিষয়ক সম্পাদক ও মনোবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সাজমুন নাহার ইষ্টি, ইংরেজি বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগের উপ-তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক তাসফিয়া জাসারাত নোলক এবং নাট্যকলা বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগের উপ-কৃষিশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদকের মধ্যে এ হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

হলের শিক্ষার্থী ও বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত তাসফিয়া জাসরাত নোলকের বিরুদ্ধে মাদকসেবন ও মাদকদ্রব্য বহনের অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া গভীর রাতে হলের বাইরে থাকায় কিছুদিন আগে প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা টহল দেওয়ার সময় তাকে আটক করেন। পরে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয় তাকে। নোলক চবি ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মো. ইলিয়াসের অনুসারী বলে জানা যায়।

রোকনুজ্জামান/এফএ/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।