ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ

পুরোনো কমিটির প্যাডে নতুন সহ-সভাপতি, ক্যাম্পাসজুড়ে বিতর্ক

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ইবি
প্রকাশিত: ০৪:১২ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০২২

কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) ছাত্রলীগের ২৪ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয় গত ৩১ জুলাই। সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সংগঠনের প্যাডে দেওয়া ওই কমিটিতে সই ছিল কেন্দ্রীয় সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের।

এ কমিটি ঘোষণার চার মাস পর একই তারিখের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি সম্পাদনা করে নতুন একজন সহ-সভাপতির পদ সংযুক্ত করা হয়েছে। নতুন সহ-সভাপতি হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের রেহেনা আক্তার ঝুমা।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) ঝুমা নিজেই তার নাম সংযুক্ত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি ফেসবুকে শেয়ার করেন। এরপর বিষয়টি জানাজানি হলে বিতর্কের সৃষ্টি হয়।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে ঝুমা লেখেন, ‘আমাকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত করায় সংগ্রামী সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ভাই ও সাধারণ সম্পাদক সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য দাদার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।’

ঝুমাকে সহ-সভাপতি পদ দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কেন্দ্রীয় সমাজসেবা সম্পাদক ও ইবি শাখার তত্ত্বাবধায়ক শেখ স্বাধীন মো. শাহেদ।

শাহেদ বলেন, ‘বিজ্ঞপ্তিটি অবৈধ নয়। যখন আমরা সিভি সংগ্রহ করি তখন ওই মেয়েটাই (ঝুমা) সিভি দিয়েছিল। কিন্তু কমিটি থেকে বাদ পড়ে যায়। সেই মেয়েটাকে আগের প্রেস বিজ্ঞপ্তিই সম্পাদনা করে পদায়ন করা হয়েছে।’

তবে এ বিষয়ে কেন্দ্র থেকে কিছু জানানো হয়নি বলে জানিয়েছেন ইবি ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত।

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘সে (ঝুমা) সিভি জমা দিয়েছিল। তবে চার মাস আগে যখন কমিটি অনুমোদন হয়, তখন তার নাম ছিল না। একজন ধর্মবিষয়ক সম্পাদকের কাছ থেকে সে প্রেস রিলিজ পেয়েছে বলে জানিয়েছিল। তবে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে আমি ব্যক্তিগতভাবে কথা বলেছিলাম। তারা তেমন কিছু এ বিষয়ে জানেন না বলে জানিয়েছেন।’

এ বিষয়ে জানতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও সম্ভব হয়নি।

তবে দপ্তর সম্পাদক ইন্দ্রনীল দেব বলেন, ‘বিষয়টি শুনেছি। এটি খুবই বিব্রতকর। আমার জানা নেই কীভাবে এটা ঘটেছে।’

জানতে চাইলে সহ-সভাপতির পদ পাওয়া রেহেনা আক্তার ঝুমা জাগো নিউজকে বলেন, ‘কেন্দ্রীয় কমিটি আমাকে পদ দিয়েছে। এজন্য আমি কেন্দ্রীয় সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের প্রতি কৃতজ্ঞ। এর বেশি কিছু বলতে চাই না।’

রুমি নোমান/এসআর/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।