আ.লীগ নেতার ভাইকে গলা কেটে হত্যা


প্রকাশিত: ০৬:৪৭ এএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

খুলনা মহানগরীর দৌলতপুর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বন্দের ছোট ভাই মহিদুল ইসলাম বন্দকে (৪২) গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

সোমবার ভোরে নগরীর আড়ংঘাটা থানার বাইপাস সড়কের পাশ থেকে তার গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত মহিদুল দৌলতপুর থানার দেয়ানা এলাকার মৃত মোক্তার হোসেনের ছেলে।

নিহতের বড় ভাই শহিদুল ইসলাম বন্দ জানান, রোববার রাতে ফোনে সংবাদ পেয়ে নগরীর দেয়ানা এলাকার বাড়ি থেকে বের হয় মহিদুল। যাওয়ার আগে সে আড়ংঘাটা থানা এলাকায় তার ঘেরে যাবে বলে বাড়িতে জানিয়ে যায়। এরপর আর তার কোনো খোঁজ খবর পাওয়া যায়নি।

তিনি আরো বলেন, সকালে ঘেরের পাশে সড়কের উপর তার মরদেহ পড়ে থাকার খবর পাই। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি পাশে একটা ডিঙি নৌকা পড়ে আছে তাতে রক্ত। মনে হয় তাকে দূরে কোথাও হত্যা করে নৌকায়কিরে মরদেহ এনে ঘেরের পাশে রেখে গেছে হত্যাকারীরা।

নগরীর আড়ংঘাটা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম খান বলেন, খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কী কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে তা প্রাথমিকভাবে বলা সম্ভব হচ্ছে না। তবে এই বিষয়ে এখনও কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

আলমগীর হান্নান/এফএ/আরআইপি