বরিশালে মরদেহ নিয়ে বিপাকে মেডিকেল কর্তৃপক্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৭:৪৬ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০১৭
বরিশালে মরদেহ নিয়ে বিপাকে মেডিকেল কর্তৃপক্ষ

বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির দুই ঘণ্টা দুই মিনিটের মধ্যে শাহিনুর (৪৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে সার্টিফিকেট দেয়া হয়েছে। ওই সার্টিফিকেটে মৃত ব্যক্তির বাবার নাম মৃত ফারুক সরদার ও ঠিকানা নগরীর রূপাতলী উল্লেখ করা হয়।

তবে আশ্চর্যের বিষয় হলো শাহিনুরের সব পরিচয় থাকার পরও মরদেহ নেয়ার কোনো অভিভাবক খুঁজে পাচ্ছে না মেডিকেল কর্তৃপক্ষ। মেডিকেলের মর্গে রক্ষিত মরদেহটি বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত কেউ নিতে আসেনি।

এদিকে মেডিকেলের নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, গভীর রাতে আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে সাদা পোশাকধারী কয়েকজন শাহিনুরকে মেডিকেলে ভর্তি করে চলে যান। এমনকি তাদের পরিচয় কারো কাছে না জানানোর নির্দেশ দেয়া হয়।

barishal

মেডিকেলের জরুরি বিভাগের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল কালাম আজাদ জানান, গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টা ৩২মিনিটে শাহিনুরকে কার্ডিওলজি বিভাগে ভর্তি করা হয়। রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় আইসিইউতে প্রেরণ করা হয়। সেখানে রাত ৩টা ৩০মিনিটে তার মৃত্যু হয়। ভর্তিকালীন সময়ও শাহিনুরের জ্ঞান ছিল না। মৃত্যুর পর কোনো স্বজন না পাওয়ায় মরদেহ মর্গের ফ্রিজে রাখা হয়।
আইসিইউ’র রেজিস্ট্রার ও রোগী ভর্তির ফরমে কে বা কারা শাহিনুর নামে ওই ব্যক্তিকে ভর্তি করিয়েছেন তা উল্লেখ করা হয়নি।

তবে মরদেহ হস্তান্তরের ফরমে ‘আমি আমার ফুফাতো ভাইয়ের মরদেহ বুঝিয়া পাইলাম’ উল্লেখ থাকলেও বিকেল পর্যন্ত কেউ মরদেহটি গ্রহণ করেনি। সেখানে একটি মোবাইল নম্বর (০১৯৯৫৪৭২২৮৩) দেয়া হয়। ওই নম্বরে একাধিকবার কল দেয়া হলেও তা কেউ রিসিভ করেননি।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আওলাদ হোসেন জানান, এ বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। খোঁজ নিয়ে বিষয়টি জানাবেন।

সাইফ আমীন/আরএআর/আইআই