প্রেমের সম্পর্ক অস্বীকার করায় প্রেমিকার আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ০২:২৯ পিএম, ০২ জানুয়ারি ২০১৮

প্রেমের সম্পর্ক অস্বীকার করায় জেলার দাকোপ উপজেলার চালনা এমএম কলেজের ছাত্রী নাজমা খাতুন (২৩) ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার কামারখোলা ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের লক্ষিপদ বাছাড়ের ছেলে দেবাশীষ বাছাড়ের (২৬) সঙ্গে একই ইউনিয়নের রেখামারী গ্রামের নহর আলীর মেয়ে এমএম কলেজের ডিগ্রি শেষ বর্ষের ছাত্রী নাজমা খাতুনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, নাজমার সঙ্গে দেবাশীষ কয়েক বছর ধরে প্রেমের ছলনা করে। তাছাড়া আমাদের মেয়ের সঙ্গে সে শারীরিক সম্পর্কও করেছে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার আত্মহত্যার আগে তাদের দু’জনকে এলাকাবাসী এক ঘরের ভেতর পায়। এ ঘটনা নিয়ে এলাকায় ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হয়।

আরও জানা যায়, প্রেমের সম্পর্ক ও একই ঘরের মধ্যে থাকা ঘটনাটি অস্বীকার করে দিবাশীষ এলাকা ছেড়ে পলাতক। এ অপমান সহ্য না করতে পেরে নাজমা তার নিজের বাড়িতে সোমবার রাতে আত্মহত্যা করে।

এ বিষয়ে দিবাশীষ বাছাড়ের কাছে জানার জন্য তার মুঠোফোনে বার বার চেষ্টা করলেও সংযোগ মেলেনি।

দাকোপ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সাহাবুদ্দিন চৌধুরী বলেন, মৃত্যের দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এর সঙ্গে জড়িত সকলকে আইনের আওতায় আনা হবে।

আলমগীর হান্নান/এমএএস/আইআই