আগুন পোহাতে গিয়ে রংপুরে আরও ২ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশিত: ০৩:০৫ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮
ছবি-ফাইল

 

শীতে আগুন পোহাতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ আরও দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে বুধবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে কুড়িগ্রামের মনিডাকুয়া গ্রামের এনামুল হকের স্ত্রী নুরিজা বেগম (৩০) এবং বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার গোলাম মোস্তফার স্ত্রী আরজিনা বেগম (২৮) মারা যান। এ নিয়ে গত ১৩ দিনে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৫ নারীর মৃত্যু হলো।

রংপুর বার্ন ইউনিট সূত্রে জানা গেছে, চলমান শৈত্যপ্রবাহ ও শীতে আগুন পোহাতে গিয়ে গত ৬ জানুয়ারি থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন রংপুর অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকার অর্ধশত নারী ও শিশু। আহতদের শরীরের ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ পুড়ে গেছে।

রংপুর বার্ন ইউনিটের সহকারী পরিচালক নূরে আলম জানান, প্রচণ্ড শীত থেকে বাঁচতে খড়কুটো জ্বালিয়ে আগুন পোহানোর সময় বিভিন্ন সময় অন্তত ৫৫ জন দগ্ধ হন। এদের রমেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে বুধবার রাতে ও বৃহস্পতিবার সকালে দুই নারীর মৃত্যু হয়।

এর আগে মারা যান, লালমনিরহাট জেলার সদর থানার সাম্মি আখতার (২৭), একই জেলার পাটগ্রামের ফাতেমা বেগম (৩২) ও আলো বেগম (২২), রংপুরের কাউনিয়ার গোলাপি বেগম (৩০), নীলফামারীর রেহেনা বেগম (২৫), রংপুর নগরীর নজিবের হাট এলাকার বেলাল হোসেনের স্ত্রী আফরোজা খাতুন (৪০), ঠাকুরগাঁও শহরের থানাপাড়ার আঁখি আক্তার (৪৫), রংপুরের জুম্মাপাড়া পাকার মাথার রুমা খাতুন (৬৫), রংপুর মাহিগঞ্জের চাঁন মিয়ার স্ত্রী মনি বেগম (২৫), নীলফামারী সদরের সোনারাম গ্রামের আমজাদ হোসেনের স্ত্রী মারুফা খাতুন (৩০), লালমনিরহাট জেলার রাজপুর গ্রামের শুকমনি (৭০), রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার জামেরন বেওয়া (৮০) ও রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার হাসু বেগম (৬৫)।

জিতু কবীর/এফএ/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :