সিলেটে বাসার ভেতর মা-ছেলের রক্তাক্ত মরদেহ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০২:০০ পিএম, ০১ এপ্রিল ২০১৮

সিলেট নগরের খারপাড়া আবাসিক এলাকার একটি বাসা থেকে মা ও ছেলের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতরা হলেন, রোকেয়া বেগম (৪২) ও ছেলে রোকন আহমদ (১৭)।

রোববার দুপুরে স্থানীয়দের কাছে থেকে খবর পেয়ে কোতোয়ালি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুটি বেডরুমে মা-ছেলের রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে। দুপুর একটায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত মরদেহ দুটি উদ্ধার ও আলামত সংগ্রহ করার জন্য সিআইডির ক্রাইম সিন দলকে খবর দেয়া হয়। সিআইডি পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হবে।

মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার ওসি গোউসুল হোসেন জানান, বাসার ভেতরে রোকেয়া বেগমের পাঁচ বছরের মেয়ে রাইসার কান্না ও মরদেহের পঁচা গন্ধ পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে তারা এসে মরদেহ উদ্ধার করছেন।

তিনি বলেন, শুক্রবারের পর থেকে রোকেয়া বেগমদের খোঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। হত্যাকাণ্ডের আলামত দেখে মনে হচ্ছে এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। এরসঙ্গে একাধিক লোক জড়িত থাকতে পারে।

সিলেট নগরের ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের মিরাবাজার খারপাড়া তিনতলা একটি বাড়ির নিচতলায় দুই সন্তানকে নিয়ে থাকতেন রোকেয়া বেগম। তার স্বামী হেলাল আহমেদ একজন প্যারালাইজড রোগী।

ওসি বলেন, ঘটনাস্থলে সিআইডিকে আসার জন্য ফোন করা হয়েছে। তারা আসার পর মরদেহ উদ্ধার করা হবে।

নিহতের এক আত্মীয় ফারুক আহমেদ বলেন, সিলেট শহরে রোকেয়ার একটি বিউটি পার্লার আছে। তার স্বামী দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ছেলে রোকন নগরের শাহজালাল জামেয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী। সে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রায় এক বছরে আগে কে বা কারা ওই বাড়িতে ঢুকে রোকেয়াকে মারধর করছিল। পরে স্থানীয় কাউন্সিলরের মধ্যস্থতায় ঘটনাটি মীমাংসা হয়।

ছামির মাহমুদ/এফএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :