মুলাদীতে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত অর্ধশতাধিক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৭:২৪ পিএম, ২২ মে ২০১৮

বরিশালের মুলাদী উপজেলায় গত এক সপ্তাহে ডায়রিয়ায় অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে কমপক্ষে অর্ধশতাধিক রোগী। হাসপাতালে চিকিৎসক সংকটের কারণে মাত্র একজন ডাক্তার রোগী নিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন। হঠাৎ ডায়রিয়া প্রকট আকার ধারণ করায় এলাকায় আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত ১৫ মে থেকে হঠাৎ করে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। প্রায় সারা দিনই ডায়রিয়ার রোগীদের ভর্তি নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে ব্যস্ত থাকতে হয়। রোগীর সংখ্যা হঠাৎ করে বৃদ্ধি পাওয়ায় হাসপাতালে ডায়রিয়ার স্যালাইন সংকট দেখা দিয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। এদিকে উপজেলার একমাত্র ৫০ শয্যা হাসপাতালের ২৮ জন চিকিৎসকের স্থলে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাসহ মাত্র ৩ জন চিকর্মরত রয়েছেন। এদের মধ্যে একজন কনসালটেন্ট (শিশু) এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও কর্মকর্তা ১০ দিনের প্রশিক্ষণে থাকায় একমাত্র চিকিৎসক মো. মেহেদী হাসান খান দিন-রাত ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা হিজলা উপজেলার গুয়াবাড়িয়া ইউনিয়নের মিজান হাওলাদার জানান, হাসপাতালে পর্যাপ্ত স্যালাইন সরবরাহ না থাকায় তাকে বাইরে থেকে কিনতে হচ্ছে। কিন্তু দোকানেও ডায়রিয়ার স্যালাইন সংকট দেখা দিয়েছে।

গাছুয়া ইউনিয়নের হাফিজ উদ্দীন জানান হাসপাতালে মাত্র একজন চিকিৎসক দিয়ে এত রোগীর চিকিৎসা সেবা সম্ভব না। তিনি অবিলম্বে মুলাদী হাসপাতালে চিকিৎসক দেয়ার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

হাসপাতালের ডা. মো. মেহেদী হাসান খান জানান, গরম এবং দূষিত পানি ব্যবহারের ফলে হঠাৎ করেই ডায়রিয়া প্রকট আকার ধারণ করেছে। তবে এ পর্যন্ত ডায়রিয়ায় আক্রান্ত কোনো রোগীকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠাতে হয়নি।

সাইফ আমীন/আরএ/এমএস