বিদেশি কুকুর নিয়ে দ্বন্দ্বে শরীফকে হত্যা

উপজেলা প্রতিনিধি সাভার (ঢাকা)
প্রকাশিত: ০৪:২৬ পিএম, ০৬ জুন ২০১৮

সাভারের বক্তারপুর এলাকায় আলোচিত শরীফ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে ছয় আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেই সঙ্গে বিদেশি কুকুর নিয়ে দ্বন্দ্বে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ।

এর মধ্যে এ ঘটনায় চারজন নিজেদের দোষ স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। পাশাপাশি বাকি দুইজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন করে রিমান্ডও মঞ্জুর করেছেন আদালত। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মো. রাব্বি, ইয়াসিন, শ্রাবন, আফতাব, ছোট রাসেল ও মুসা মিয়া।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সাভার মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোফাজ্জল হোসেন জানান, সাভারে আলোচিত শ্রমিক শরীফ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ছয়জনকে গ্রেফতার করে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় চারজন তাদের দোষ স্বীকার করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে এবং বাকি দুইজনের তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

এসআই মোফাজ্জল হোসেন বলেন, একটি বিদেশি কুকুরকে আটকে রাখাকে কেন্দ্র করে শরীফ ও তার বন্ধুদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে শরীফকে কুপিয়ে হত্যা করে প্রতিপক্ষ। পরে নিহতের বাবা মোসলেম মিয়া বাদী হয়ে সাভার মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করে পুলিশ।

একপর্যায়ে আসামিদের গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়। তবে ঘটনার মূল হোতাসহ অনেকে এখনো অধরা। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলেও জানান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি সাভারের বক্তারপুর এলাকায় শরীফকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। নিহত শরীফ ময়মনসিংহের গৌরিপুর থানার রামপুর গ্রামের মোসলেম মিয়ার ছেলে। বক্তারপুর এলাকায় পরিবার নিয়ে ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি জুতা তৈরির কারখানায় কাজ করতেন শরীফ।

আল-মামুন/এএম/জেআইএম