চাল কম দিয়ে রোষানলে নারী ইউপি সদস্য

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৮:৩২ পিএম, ১৯ আগস্ট ২০১৮

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার হারতার কালবিলা গ্রাম থেকে নারী ইউপি সদস্যের আত্মসাৎ করা ভিজিএফের ১৪০ কেজি চাল উদ্ধার করেছে এলাকাবাসী।

রোববার বিকেল ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত সান্তনা মল্লিক হারতা ইউনিয়নের ১, ২, ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য ও কালবিলা গ্রামের অমৃত মল্লিকের স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানায়, রোববার ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ভিজিএফের চাল বিতরণ শুরু হলে তিনজনকে সঠিকভাবে চাল দিয়ে বাকিদের কম চাল দেন সান্তনা মল্লিক। পাশাপাশি ভিজিএফের ১৪০ কেজি চাল নিজ বাড়িতে নেয়ার উদ্দেশ্যে কালবিলা গ্রামের রতন মল্লিকের স্ত্রীর কাছে পাঠিয়ে দেন সান্তনা মল্লিক।

বিষয়টি জানতে পেরে কালবিলা গ্রামের হতদরিদ্র তাহের হাওলাদার, মান্নান হাওলাদারসহ শতাধিক এলাকাবাসী সান্তনা মল্লিকের বাড়ির পাশের বিশ্বাসের বাড়ি থেকে ওসব চাল উদ্ধার করে। এ সময় এলাকাবাসীর রোষানলে পড়েন নারী ইউপি সদস্য সান্তনা মল্লিক।

পরে এলাকাবাসী ইউপি চেয়ারম্যান হরেন রায়কে বিষয়টি অবহতি করলে তিনি পরিস্থিতি বেগতিক দেখে ওই চাল স্থানীয়দের মাঝে বিতরণের নির্দেশ দেন।

তবে ওই ইউনিয়নের একাধিক বাসিন্দা জানিয়েছেন, ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যরা মিলে প্রায় কয়েকটি ওয়ার্ডের ভিজিএফের চাল আত্মসাৎ করেছেন।

এ ব্যাপারে ভিজিএফের চাল তদারকি কর্মকর্তা একাডেমিক সুপার ভাইজার সুমন চৌধুরী বলেন, রোববার ভিজিএফের চাল বিতরণের সময় উপস্থিত থাকতে পারিনি। অনিয়ম হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জানতে চাইলে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মফিজুর রহমান বলেন, বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ এসেছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থ্যা নেয়া হবে।

এদিকে, অভিযুক্ত নারী ইউপি সদস্য সান্তনা মল্লিক চাল আত্মসাতের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, চেয়ারম্যান এ বিষয়টি ভালো জানেন। তার সঙ্গে কথা বলেন।

এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান হরেন রায় বলেন, চাল বিতরণে অনিয়ম হয়েছে জানিয়ে এলাকাবাসী অভিযোগ করেছেন। উদ্ধার হওয়া চাল দরিদ্রদের মাঝে বিতরণের নির্দেশ দিয়েছি।

সাইফ আমীন/এএম/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :