রাজবাড়ীতে পদ্মা তীরে প্রতিরক্ষা বাঁধে ধস

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজবাড়ী
প্রকাশিত: ০৯:১৬ এএম, ২৮ আগস্ট ২০১৮

পদ্মা বিধৌত রাজবাড়ীর গোদার বাজার এলাকায় নদীর তীর প্রতিরক্ষা বাঁধের ব্লকসহ প্রায় ১০০ গজ বাঁধ ধসে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এতে স্থানীয়দের মাঝে ভাঙন আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

রাজবাড়ীতে বর্তমানে বিনোদনের কোনো স্থান না থাকায় বিভিন্ন উৎসব পার্বণ ও ছুটির দিনে গোদার বাজার এলাকায় ভিড় জমান প্রকৃতিপ্রেমী ও বিনোদন পিয়াসী মানুষ। কিন্তু হঠাৎ করেই গত শনিবার ২৫ আগস্ট বিকেলে গোদার বাজার এলাকার নদীর তীর প্রতিরক্ষা বাঁধ ধসে পড়লে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন এলাকাবাসী।

Rajbari-padma

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, গোদার বাজার এলাকায় শত শত মানুষ প্রতিদিন ঘুরতে আসেন। অনেকে এ সময় ইঞ্জিন চালিত ট্রলারে নদীতে ঘুরে বেড়ান পরিবারসহ। আবার অনেকে নদীর প্রতিরক্ষা বাঁধে বসে আড্ডা দেন। কিন্তু গত শনিবার হঠাৎ প্রায় ১০০ গজের বেশি এলাকাজুড়ে প্রতিরক্ষা বাঁধ ধসে যাওয়ায় আতঙ্ক বিরাজ করছে সবার মনে। ক্রমেই ভাঙন বাড়ছে। দ্রুত এ বাঁধ সংস্কার না করা হলে শহর রক্ষার মূল বাঁধ হুমকির মুখে পড়বে। তাই দ্রুত এ প্রতিরক্ষা বাঁধ সংস্কার করার দাবি সবার।

এদিকে ওই এলাকার ভাঙন আতঙ্কে থাকা এনজিএল ব্রিকস ইট ভাটার পরিচালক আলামিন মোস্তফা জানান, নদীতে অপরিকল্পিতভাবে ড্রেজিং করায় প্রতিরক্ষা বাঁধে ধস নেমেছে। প্রতিরক্ষা বাঁধে ধস নামায় তার ইট ভাটা হুমকির মুখে পড়েছে। দ্রুত ভাঙন কবলিত স্থান সংস্কার না করলে ইট ভাটাসহ ওই এলাকা নদীতে বিলীন হয়ে যাবে। এ ইট ভাটায় প্রায় সাড়ে ৩শ শ্রমিক কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। ভাটা বন্ধ হলে তারাও কর্মহীন হয়ে পড়বেন।

Rajbari-padma

রাজবাড়ীর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রৌকশলী প্রকাশ কৃষ্ণ সরকার জানান, প্রতিরক্ষা বাঁধে ধসের পরই তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেছেন প্রায় ৫০ মিটারের মতো জায়গা ব্লকসহ ধসে গেছে। ভাঙন রোধে জরুরি ভিত্তিতে আগামী দু’একদিনে মধ্যে ব্লক ও জিও ব্যাগ ফেলার কাজ শুরু করা হবে। এজন্য পত্রের মাধ্যমে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

রুবেলুর রহমান/এফএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :