ভিন্নমত থাকাটাই গণতন্ত্রের বিউটি : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০১:৫২ পিএম, ৩১ আগস্ট ২০১৮

‘নির্বাচন কমিশন তো পাঁচজনকে নিয়ে। পাঁচজনের মধ্যে একজন নোট অফ ডিসেন্ট দিতেই পারেন। ভিন্নমত থাকতেই পারে। এটাই তো গণতন্ত্রের বিউটি।’

শুক্রবার সকালে সিলেট সার্কিট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে ইভিএম ব্যবহার নিয়ে নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত ও একজন নির্বাচন কমিশনারের সভা থেকে বেরিয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে এ কথা বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, কমিশনার মাহবুব তালুকদারের এই আপত্তি এবং সভা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়টিকে নির্বাচন কমিশনে ‘গণতান্ত্রিক পরিবেশ’ থাকার প্রমাণ। নির্বাচন কমিশনেও গণতন্ত্র আছে। নোট অব ডিসেন্ট দেয়ার অধিকার তার আছে। এরজন্য জটিলতা তৈরি হবে কেন? একজনের মত যেমন আছে, গণতান্ত্রিক ধারায় বাকি চারজনেরও মত আছে। তারা সিদ্ধান্ত নিতে পারবে।

এ সময় তিনি আরও বলেন, ইভিএমের মাধ্যমে জাল ভোট দেয়ার কিংবা কারচুপির সুযোগ নেই। ইভিএম ব্যবহার দেশের নির্বাচন সম্পর্কে ইতিবাচক ধারণার তৈরি করবে। কিন্তু ‘ভোটে কারচুপি হয়েছে’ এমন অভিযোগ করতে পারবে না বলেই বিএনপি ইভিএম নিয়ে আপত্তি করছে।

কেউ যদি নির্বাচনে না আসে, তবে কারও জন্যে নির্বাচনের ট্রেন থেমে থাকবে না মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি যদি আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে আওয়ামী লীগের তাতে কিছু করার নাই।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, এনামুল হক শামিম ও খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

পরে শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিমানযোগে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় এসব নেতা।

ছামির মাহমুদ/এফএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :