তেল না পেয়ে ফিলিং স্টেশন বন্ধ করলেন আ.লীগ নেতা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৮:৩২ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

হেলমেট না থাকায় মোটরসাইকেলের তেল পাননি রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক। তাই ক্ষুব্ধ হয়ে উপজেলা সদরের পুঠিয়া ফিলিং স্টেশন বন্ধ করে দিয়েছেন তিনি।

বুধবার দুপুরে তেল না পেয়ে এ ঘটনা ঘটান আব্দুল মালেক। আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মালেক উপজেলার পালোপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

ওই ফিলিং স্টেশনের ব্যবস্থাপক অলক কুমার সরকার বলেন, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হেলমেট ছাড়া ফিলিং স্টেশনে মোটরসাইকেলে তেল নিতে আসেন আব্দুল মালেক। পুলিশের নির্দেশনা থাকায় তাকে তেল দেয়নি বিক্রয়কর্মীরা।

এতে ক্ষুব্ধ হয়ে চলে যান তিনি। পরে ফিরে এসে ফিলিং স্টেশন বন্ধ করে দেন। নিজে দাঁড়িয়ে থেকে বিক্রয়কর্মীদের দড়ি টাঙাতে বাধ্য করেন। যাওয়ার সময় বলে যান এখন থেকে তেল বিক্রি করা হলে দেখে নেয়া হবে। পরে বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন এবং থানা পুলিশকে জানাই আমরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, হেলমেটবিহীন এবং তিনজন আরোহীর মোটরসাইকেলে তেল দেয়া হবে না এমন ব্যানার টাঙানো ছিল ফিলিং স্টেশনটিতে। সকালে ওই আওয়ামী লীগ নেতা তেল নিতে এসে না পেয়ে বাকবিতণ্ডায় জড়ান। ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি স্টেশনটি বন্ধ করে দেন।

এদিকে, স্টেশনটি বন্ধ করে দেয়ায় তেল না পেয়ে বিপাকে পড়েছেন এলাকার সাধারণ মানুষ। সন্ধ্যা পর্যন্ত স্টেশনটি চালু করা হয়নি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে কয়েক দফা চেষ্টা করেও আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মালেকের মুঠোফোনে সংযোগ পাওয়া যায়নি। তাই বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

তবে বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে দুই পক্ষেকে নিয়ে বসার কথা জানিয়েছেন পুঠিয়া থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) রাকিবুল হাসান। তিনি বলেন, বিষয়টি শুনেছি। ওই আওয়ামী লীগ নেতাকে নিয়ে বসে বিষয়টি সমাধান করা হবে।

ফেরদৌস সিদ্দিকী/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :