রংপুরে জেএমবির ২ সদস্য আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশিত: ০৫:১১ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) দুই সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। নগরীর তাজহাট থানা এলাকার রংপুর-বগুড়া মহাসড়কের মর্ডাণ ব্রিচের পাশে খালপাড়ায় ও লালমনিরহাটের পাটগ্রামে পৃথক দুটি অভিযান চালিয়ে শনিবার সন্ধ্যায় তাদেরকে আটক করা হয়। এসময় অস্ত্র ও গুলিসহ বিপুল পরিমাণ জিহাদি বই উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

গ্রেফতাররা হলেন-লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বানিয়াপাড়া রসুলগঞ্জ গ্রামের মৃত ওসমান গণির ছেলে আবু সাদেক সাইদুজ্জামান (বাবু) ওরফে আমির হামজা (৪৬) এবং একই উপজেলার রসুলগঞ্জ সাহেব ডাঙ্গা গ্রামের মৃত মোবারক আলী প্রধানের ছেলে তালিম প্রধান (২৫)।

রোববার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে নগরীর পানি উন্নয়ন বোর্ডস্থ কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান র‌্যাব-১৩ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোজাম্মেল হক।

jagonews

তিনি জানান, রংপুর নগরীর খালপাড়া এলাকার জনৈক ফেরদৌস আলম মুকুল নামে এক ব্যক্তির পতিত ফাঁকা জমিতে অভিযান চালিয়ে ৩২টি জঙ্গিবাদী বই, ১২০টি লিফলেট, ১টি ম্যাগাজিন, বিদেশি পিস্তল, ২ রাউন্ড গুলি, ৩টি সিমকার্ড ও ২টি মোবাইল সেটসহ জেএমবির সক্রিয় সদস্য আমির হামজাকে আটক করা হয়। তিনি লালমনিরহাট জেলা জেএমবির দাওয়াতে আমির হিসেবে কার্যক্রম চালাতেন। জঙ্গিবাদের আড়ালে তিনি ‘ওহির আলো’ নামে একটি কিন্ডার গার্ডেন স্কুল পরিচালনা করছিলেন। আমির হামজাকে আটকের পর তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী ওই রাতেই পাটগ্রাম বাজারের নাবিল কাউন্টারের কাছে তালিম কম্পিউটার পয়েন্টের ঘরে অভিযান চালিয়ে ১৮টি জঙ্গিবাদী বই, ১০০টি লিফলেট, ১টি পুরাতন ব্যবহৃত সিপিইউ, ২টি মোবাইল ফোন ও ৪টি সিমকার্ডসহ তালিমকে আটক করা হয়।

jagonews

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দুই জেএমবি সদস্যের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে র‌্যাব-১৩ এর অধিনায়ক আরও জানান, গ্রেফতারকৃতরা দুই বছর ধরে গোপনে সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি নাশকতার পরিকল্পনা করে আসছিলেন। তাদের দেয়া তথ্যমতে অত্র বৃহত্তর রংপুর অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় নাশকতার পরিকল্পনা ছিল তাদের।

জিতু কবীর/আরএ/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :