নাতিকে মারধরের প্রতিবাদ করায় দাদিকে পিটিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৫:৫৬ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৮
প্রতীকী ছবি

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় নাতিকে মারধরের প্রতিবাদ করায় প্রতিবেশীরা রাশিদা বেগম (৫৫) নামে এক বৃদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সোমবার বিকেলে উপজেলার কাজিরহাট থানাধীন ভোংগা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, গাছের নিচে পড়ে থাকা সুপারি নিয়ে রাশিদা বেগমের নাতি তামিমের সঙ্গে প্রতিবেশী এনামুলের ছেলে জিসানের কথা কাটাকাটি হয়। এরপর তামিমকে মারধর করা হয়। এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে জিসানের স্বজনদের মারধরে রাশিদা বেগমের মৃত্যু হয়।

নিহত রাশিদা বেগমের ছোট ছেলে মো. রিয়াজ হোসেন বলেন, গাছের নিচে পড়ে থাকা সুপারির মালিকানা নিয়ে গত রোববার দুপুরে প্রতিবেশি রহিম খা আমার ভাই আরিফ হোসেনের পাঁচ বছর বয়সী ছেলে তামিমকে মারধর করে। নাতিকে মারধরের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করতে যান আমার মা রাশিদা বেগম। এ সময় রহিম ও তার স্ত্রী তাসলিমা, ছেলে এনামুল, মিরাজ, নাজমুল ও এনামুলের স্ত্রী আসমা একত্রিত হয়ে আমার মাকে (রাশিদা) বেদম মারধর করে বাড়ির পার্শ্ববতী পুকুরে ফেলে দেন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মুলাদী হাসপাতালে নেয়া হলে সেখান থেকে বরিশালে পাঠিয়ে দেয়া হয়। রাতে শের-ই-বাংলা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সোমবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরও বলেন, ঘটনার সময় আমরা কেউ বাড়িতে ছিলাম না। তাই বাধা দিতে পারেনি। বাড়িতে থাকলে আমার মাকে তারা পিটিয়ে মেরে ফেলতে পারতো না।

কাজিরহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনিসুল ইসলাম জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় নিহতের বড় ছেলে আরিফ হোসেন বাদী হয়ে কাজিরহাট থানায় হত্যা মামলা করেছেন। ঘটনার পর আসমিরা এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সাইফ আমীন/আরএআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :