সিভিল সার্জন অফিসে দুদকের অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ০৯:১৬ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৮

স্বাস্থ্য সনদ বাবদ অতিরিক্ত অর্থ গ্রহণের অভিযোগে খুলনার সিভিল সার্জন অফিসে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার নগরীর মির্জাপুর রোডের সিভিল সার্জন কার্যালয়ে এ অভিযান চালানো হয়। তবে তাৎক্ষণিক অতিরিক্ত অর্থ গ্রহণের প্রমাণ না মিললেও সনদ প্রদান রেজিস্ট্রার এবং সনদ প্রার্থীদের নাম-ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর না থাকায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন দুদক টিম।

দুদক খুলনার অফিস সূত্র জানায়, স্বাস্থ্য সনদ প্রদান বাবদ বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে খুলনার সিভিল সার্জন অফিসে অতিরিক্ত অর্থ গ্রহণ করা হচ্ছে- এ মর্মে ১০৬ নম্বরে দুদক প্রধান কার্যালয়ে অভিযোগ করা হয়। অভিযোগের প্রেক্ষিতে দুদক খুলনার সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. আবুল হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম সোমবার দুপুরে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে অভিযান চালান।

এ সময় অফিসের উচ্চমাণ সহকারী এসএম মহসিন আলীকে সনদ প্রদান রেজিস্ট্রার দেখাতে বললেও তিনি তা দেখাতে পারেননি। অভিযানকালে সিভিল সার্জন বাইরে থাকায় তাকে খবর দিয়ে আনা হয়।

দুদকের জিজ্ঞাসাবাদে সিভিল সার্জন ডা. এএসএম আব্দুর রাজ্জাক বলেন, স্বাস্থ্য সনদ প্রদান বাবদ ১০০ টাকা করে নিতে ১৯৮৭ সালের এক আদেশে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অনুমোদন রয়েছে। সে বাবদ টাকা নেয়া হয়। কিন্তু টাকার বিপরীতে কোনো রশিদ, হিসাব বা এ সংক্রান্ত কোনো রেজিস্ট্রার দফতরে সংরক্ষণ করা হয় না।

এ সময় দুদক টিম স্বাস্থ্য পরীক্ষার সনদ প্রদান বাবদ কোনো ফি নেয়া হয় না মর্মে লিখিত ব্যানার টাঙিয়ে রাখা এবং এ সংক্রান্ত রেজিস্ট্রার সংরক্ষণের পরামর্শ দেন।

আলমগীর হান্নান/এএম/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :