বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৪:৪২ পিএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮

রাজশাহীতে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। নগরীর খড়খড়ি বাইপাস এলাকায় নিজেদের জমির পাশে থাকা আয়নাল হক নামে এক ব্যক্তির সাড়ে ৪ কাঠা জমি বেড়া দিয়ে দখলে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়টি। এ বিষয়ে নগরীর চন্দ্রিমা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন জমির মালিক আইনাল হক। কিন্তু এখনও জমি দখলমুক্ত করতে ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ।

জমির মালিক আয়নাল হকের অভিযোগ, ৩০ নভেম্বর বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ খড়খড়ি ক্যাম্পাসের পাশে তার সাড়ে ৪ কাঠা জমি দখলে নিয়েছে। ওই সময় এলাকাবাসীকে সঙ্গে নিয়ে তিনি প্রতিবাদ জানিয়েছেন। কিন্তু তাদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পরে তারা আর জমিতে নামতে পারেননি।

আইনাল হকের মেয়ে ঝর্ণা খাতুন অভিযোগে বলেন, প্রতিকার পেতে ওই দিনই আমার বাবা চন্দ্রিমা থানায় লিখিত অভিযোগ দেন। পরদিন আবারও থানায় গিয়ে জমি উদ্ধারের জন্য আকুতি জানালেও পুলিশের সাড়া মেলেনি। পুলিশের নিষ্ক্রিয়তায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারী আমাদের অনবরত ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন।

ঝর্ণা খাতুন জানান, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের খড়খড়ি ক্যাম্পাস ঘেঁষা তার বাবার সাড়ে ৪ কাঠা জমির বর্তমান বাজারমূল্য ৬০ লাখ টাকার বেশি। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের জমি কেনারও কোনো প্রস্তাব না দিয়ে ৩০ নভেম্বর জোর করে দখলে নেয়। একইদিনে সড়ক সংলগ্ন বেশকিছু সরকারি জমিও বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় দখল করে। এখন জমির দখলও ছাড়ছে না এমনকি দাম চাইলেও ভয়ভীতি দেখাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এদিকে বিষয়টি স্বীকার করে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্বাহী পরিচালক শামীম আহসান পারভেজ বলেন, খড়খড়ি ক্যাম্পাস এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জমি নিয়ে কিছু সমস্যা চলছে। আমরা সেটি সমাধানের চেষ্টা করছি।

যোগাযোগ করলে নগরীর চন্দ্রিমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

ফেরদৌস সিদ্দিকী/এফএ/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :