সিলেটবাসীর জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনের স্ট্যাটাস

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০৮:৫৯ এএম, ১৫ জানুয়ারি ২০১৯

৩০ ডিসেম্বর সিলেট-১ আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন সদ্য বিদায়ী অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের ছোটভাই ড. আবুল কালাম আবদুল মোমেন (ড. একেএ মোমেন)। এরপর আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পান ৭২ বছরের এই কূটনীতিক। পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেয়ার পর আজ ১৫ জানুয়ারি দুপুর দেড়টায় সিলেট আসছেন ড. মোমেন। তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিপুল সংবর্ধনা জানাতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ।

ইতোমধ্যে গত ১৩ জানুয়ারি যৌথসভা করে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা ব্যাপকভাবে ড. মোমেনকে স্বাগত জানাতে ওসমানী বিমানবন্দরে আজ দুপুরে হাজির হওয়ার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এ অবস্থায় ১৪ জানুয়ারি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একেএ মোমেন নিজের ফেসবুক পেজে সিলেটবাসীকে আহ্বান জানিয়ে একটি সতর্কতামূলক স্ট্যাটাস দিয়েছেন। জাগো নিউজের পাঠকদের জন্য স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হলো-

Momen

‘প্রিয় সিলেটবাসী
আস্সালামুওয়ালাইকুম
আগামীকাল দুপুর ১:৩০ ঘটিকার সময় আমি আমার প্রিয় মাতৃভূমি সিলেটে আসছি। আপনাদের দেয়া পবিত্র আমানত ভোটের মাধ্যমে জয়লাভ এবং যথাক্রমে এমপি ও মন্ত্রীসভায় যোগদানের পর এটাই আমার প্রথম সিলেট সফর।

প্রিয় সিলেটবাসী, আমি জানি আপনারা আজ অত্যন্ত আনন্দিত। আমি এটাও জানি যে আপনারা অনেকে উল্লসিত হবেন আমাকে আপনাদের মাঝে পেয়ে। আপনাদের কাছে আমার আকুল আবেদন, আপনারা এমন কোনো কার্যক্রম পরিচালনা করবেন না যাতে নগরবাসী দুর্ভোগের শিকার হন এবং আমি আরও বলতে চাই আপনারা কোনভাবেই যেন সড়ক আইন ভঙ্গ না করেন। যেমন- হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেল চালানো, অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে এয়ারপোর্টে আসা। এছাড়াও আমার অনুরোধ আপনারা যেন এয়ারপোর্টের কোনরূপ শৃঙ্খলা ভঙ্গ না করেন যাতে অন্য কোনো যাত্রী কষ্ট পায় কিংবা প্রচলিত আইন ভঙ্গ করেন।

আমার আরও একটি বিশেষ অনুরোধ আমার সাথে সাক্ষাৎ করার সময় কোনোরূপ ফুল বা উপহার সামগ্রী না নিয়ে আসার জন্য। আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি আপনাদের দোয়া ও ভালোবাসা আমার কাছে সব থেকে বড় পাওয়া।

ধন্যবাদ
মোমেন।’

ড. একেএ মোমেনের জনসচেতনতামূলক ইতিবাচক এই স্ট্যাটাস সিলেটের রাজনৈতিক মহলসহ সুশীল সমাজে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

ছামির মাহমুদ/এফএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :