প্রকৌশলীর ভুলে পানির নিচে ৫০ একর বোরো চারা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশিত: ০৯:১৬ এএম, ২৪ জানুয়ারি ২০১৯

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় সদ্য রোপনকৃত বোরো ধানের চারা তিস্তা সেচ ক্যানেলের পানিতে তলিয়ে গেছে। গত ৪ দিন ধরে প্রায় ৫০ একর জমিতে রোপনকৃত চারাগুলো পানিতে তলিয়ে থাকায় পচে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ক্ষতির জন্য কৃষকরা ওই ক্যানেলের দায়িত্বে থাকা রংপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপসহকারী প্রকৌশলীকে দায়ী করেছেন। ক্ষতি পূরণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।

জানা গেছে, উপজেলার বড়বিল ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চলগুলোতে চলতি বোরো ধানের চারা রোপন করেন কৃষকরা। ওইসব এলাকায় তিস্তার সেচ ক্যানেল রয়েছে। গত রোববার সকালে ক্যানেলের পানিতে প্রায় ৫০ একর বোরো চারা তলিয়ে যায়। পানি নেমে যাওয়ার কোনো ব্যাবস্থা না থাকায় গত ৪ দিন ধরে চারাগুলো পানিতেই তলিয়ে আছে। ফলে কৃষকদের প্রায় ৫০ একর জমির রোপনকৃত চারা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

কৃষক রিপন, রশিদ ও মজিদসহ অনেকে জানান, সেচ ক্যানেলের দায়িত্বে থাকা রংপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপসহকারী প্রকৌশলী বরকত আমিন তাদের না জানিয়ে নিজের ইচ্ছামতো গত শনিবার রাতে ক্যানেলের পানি ছেড়ে দেন। কিন্তু পানি বের হওয়ার পয়েন্ট বন্ধ থাকায় ক্যানেল ভরাট হয়ে পাশের নিচু জমিতে রোপনকৃত বোরো চারা তলিয়ে যায়। রোববার সকালে ধানের চারা তলিয়ে যাওয়ায় প্রকৌশলী বরকতের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তিনি কোনো সাড়া দেননি। ক্ষতির জন্য তাকেই দায়ী করছেন কৃষকরা।

এ ব্যাপারে বরকত আমিনের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

জিতু কবীর/এফএ/আরআইপি

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]