তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনায় রিমান্ডে দুই পুলিশ কর্মকর্তা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মানিকগঞ্জ
প্রকাশিত: ০২:১৫ পিএম, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
এসআই সেকেন্দার ও এএসআই মাজহারুল (বাম থেকে)

ডাকবাংলোতে আটকে রেখে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া থানার এসআই সেকেন্দার হোসেন ও এএসআই মাজহারুল ইসলামের ছয়দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে তাদের মানিকগঞ্জের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ গোলাম সারওয়ারের আদালতে হাজির করে পুলিশ ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে। এ সময় বিচারক গ্রেফতার দুই পুলিশ কর্মকর্তার ছয়দিনের রিমান্ড মঙ্জুর করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাটুরিয়া থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে সোমবার রাতে নির্যাতনের শিকার ওই তরুণী সাটুরিয়া থানায় দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। এরপর দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। রাতেই ওই তরুণীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

ওই তরুণীর অভিযোগ, গত বুধবার এক খালার সঙ্গে পাওনা টাকা চাইতে গেলে সাটুরিয়া থানার এসআই সেকেন্দার হোসেন ও এএসআই মাজহারুল ইসলাম ডাকবাংলোর একটি রুমে দুইদিন আটকে রেখে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করে। এ সময় জোর করে তরুণীকে ইয়াবা সেবন করান দুই পুলিশ কর্মকর্তা। গত শুক্রবার তাদের ডাকবাংলো থেকে বের করে দেয়ার পর ঘটনা জানাজানি হয়। এরপর শনিবার রাতে ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়।

রোববার ওই তরুণী মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ করলে তিনি দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেন। সন্ধ্যায় তদন্ত কর্মকর্তা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাফিজুর রহমান জানান, প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।

বি এম খোরশেদ/আরএআর/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :